kalerkantho


তিব্বতে ব্রহ্মপুত্রের শাখা নদী বন্ধ করল চীন!

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



তিব্বতে ব্রহ্মপুত্রের শাখা নদী বন্ধ করল চীন!

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, তিব্বতে ব্রহ্মপুত্রের একটি শাখা নদী বন্ধ করে দিয়েছে চীন।

পাকিস্তানের সঙ্গে সিন্ধু পানিবণ্টন চুক্তি খারিজ করার বিষয়ে দিল্লির চিন্তাভাবনা করার পর্যায়ে এ ঘটনা ঘটল। চীনের এখন পর্যন্ত সবচেয়ে ব্যয়বহুল হাইড্রো প্রজেক্টের অংশ হিসেবে এ পদক্ষেপ নেওয়ার কথা জানানো হয়েছে।

তিব্বত হয়ে ভারতের অরুণাচল প্রদেশে প্রবেশ করে জিয়াবুকু নামের ব্রহ্মপুত্রের এই শাখা নদী। এটা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ভারতে এর কতটা প্রভাব পড়বে, সে ব্যাপারে তাত্ক্ষণিক কিছুু জানা যায়নি।

২০১৪ সালে তিব্বতের জিগজে অঞ্চলে জিয়াবুকুর ওপর হাইড্রো প্রজেক্টের কাজ শুরু করে চীন। ২০১৯ সালে এর কাজ শেষ হওয়ার কথা। ৪.৯৫ বিলিয়ন ইউয়ান বা ৭৪০ মিলিয়ন ইউএস ডলার বাজেটের এই জলবিদ্যুৎ প্রকল্প এখন পর্যন্ত চীনের সবচেয়ে খরচসাপেক্ষ হাইড্রো প্রজেক্ট। উত্তর-পূর্ব ভারত এবং বাংলাদেশ এ নদীর নিম্ন তীরবর্তী অঞ্চল। ব্রহ্মপুত্রের এই শাখা নদীর প্রবাহ বন্ধ করে দেওয়ায় এর কতটা প্রভাব ভারত ও বাংলাদেশে পড়বে, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। অন্যদিকে জিয়াবুকুর ওপর তৈরি এ বাঁধে পানি আটকানো যায় না বলে দাবি করেছে চীন।

ভারতের উদ্বেগ মাথায় রেখেই তারা যেকোনো সিদ্ধান্ত নেবে বলে জানিয়েছে পেইচিং।

গত বছর চীনে ব্রহ্মপুত্রের ওপর নির্মিত হাইড্রো পাওয়ার স্টেশন ভারতের উদ্বেগ বাড়ায়। গত মার্চে কেন্দ্রীয় পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী সানওয়ার লাল জাট বিবৃতি দিয়ে জানান যে এ বিষয়ে চীনের সঙ্গে কথা বলেছে ভারত। ভারত ও চীনের মধ্যে কোনো পানিবণ্টন চুক্তি নেই। এ অবস্থায় দুই দেশের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত নদীগুলোর পানিবণ্টন বিষয়ে ২০১৩-তে একটি ‘এক্সপার্ট লেভেল মেকানিজম’ চূড়ান্ত করে দুই দেশ। পাকিস্তানের সঙ্গে সিন্ধু চুক্তি খারিজ করতে পারে ভারত। এরই পাল্টা হিসেবে পাকিস্তানের বন্ধু দেশ চীন এ পদক্ষেপ নিল কি না, তা খতিয়ে দেখছে দিল্লি। সূত্র : এই সময়।


মন্তব্য