kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


শতবর্ষী রুলিনের ইচ্ছা প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট দেখা

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



শতবর্ষী রুলিনের ইচ্ছা প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট দেখা

রুলিন স্টেইনিঙ্গারের বয়স এখন ১০৩ বছর। মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ১৯৩৬ সালে জীবনের প্রথম ভোট দেন তিন।

সেদিন তাঁর পছন্দের প্রার্থী ছিলেন ফ্রাঙ্কলিন ডি রুজভেল্ট। শতবর্ষী এই নারীর একটাই ইচ্ছা, যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম নারী প্রেসিডেন্টকে দেখবেন তিনি। আর সে জন্য ডেমোক্র্যাট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনকে তাঁর মূল্যবান ভোটটি দিয়েছেন। গত বৃহস্পতিবার হাওকি অঙ্গরাজ্যে নির্বাচনের আগাম ভোট নেওয়া হয়। তাতেই তিনি তাঁর ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।

এদিন হিলারির সঙ্গে সাক্ষাতে রুলিন বলেন, ‘আমরা আপনাকে হোয়াইট হাউসে অধিষ্ঠিত করতে যাচ্ছি। আজ আমি আপনাকে ভোট দিচ্ছি। ’

১৯১৩ সালে রুলিনের জন্ম। সে সময় নারীদের ভোটাধিকার পর্যন্ত ছিল না। ভোটাধিকার পাওয়ার পর থেকে প্রতিটি নির্বাচনে ভোট দিয়ে আসা এ নারী তাঁর দেশে একজন নারী প্রেসিডেন্ট দেখার আশায় দিন গুনেছেন। হিলারির জয় নিশ্চিত করার মধ্য দিয়ে তিনি সেই স্বপ্নের বাস্তবায়ন চান। গত ফেব্রুয়ারিতে আইওয়া ককাসে হিলারিকে ভোট দেওয়ার সময় এ নারী বলেছিলেন, ‘হিলারি নির্বাচিত হওয়া পর্যন্ত আমি বেঁচে থাকতে চাই। ’

রুলিন বছরের শুরুর দিকে হিলারিকে চিঠিতে লিখেছিলেন, ‘আমার জীবনের প্রথম ১০০ বছরে অনেক অবিশ্বাস্য ঘটনা আমি দেখেছি। একটা মহামারি, দুটি বিশ্বমন্দা, পোলিও নির্মূলের উপায়, প্রথম ক্যাথলিক প্রেসিডেন্ট, চন্দ্রপৃষ্ঠে মানুষ, গুটিবসন্তের অবসান, আমেরিকার মাটিতে হামলা ও একজন কৃষ্ণাঙ্গ প্রেসিডেন্ট। আমার দ্বিতীয় শতকে আমি একজন নারী প্রেসিডেন্টকে দেখতে চাই। ’

ভোটারদের প্রভাবিত করতে আগাম ভোটগ্রহণ কার্যক্রম যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ দিক। এ বিবেচনায় গত বৃহস্পতিবার হাওকি অঙ্গরাজ্যে প্রচারে আসেন হিলারি। ওই দিনই তাঁকে আগাম ভোট দেন রুলিন।

সূত্র : সিএনএন।


মন্তব্য