kalerkantho

সোমবার । ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ । ৮ ফাল্গুন ১৪২৩। ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮।


যুক্তরাষ্ট্রে আরেক নিরস্ত্র কৃষ্ণাঙ্গকে মারল পুলিশ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



যুক্তরাষ্ট্রে আবারও এক নিরস্ত্র কৃষাঙ্গ পুলিশের গুলিতে নিহত হয়েছে। মঙ্গলবার ক্যালিফোর্নিয়ার সান ডিয়াগো শহরে নিহত ৩৮ বছর বয়সী আলফ্রেড ওকওয়েরা ওলাঙ্গো মানসিকভাবে অসুস্থ ব্যক্তি বলে জানা গেছে। এ হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে রাস্তায় নেমেছে ক্যালিফোর্নিয়ার মানুষ। স্থানীয় কর্মকর্তারা তাদের শান্ত হওয়ার আহ্বান জানিয়ে ঘটনার পূর্ণ তদন্তের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

সান ডিয়াগোর উপশহর এল কাজোনে জরুরি ফোনে পুলিশকে জানানো হয়, একটি লোক সড়কে চলন্ত গাড়ির মাঝখানে হাঁটাহাঁটি করছে এবং উদ্ভ্রান্তের মতো আচরণ করছে। এল কাজোনের পুলিশপ্রধান জেফ ডেভিস বলেন, ‘পুলিশ সেখানে গিয়ে ওলাঙ্গোকে বারবার তার পকেট থেকে হাত বের করার জন্য বললেও সে তাতে কর্ণপাত করেনি; এরপর সে যখন ঘুরে দাঁড়ায় এবং পকেট থেকে কিছু একটা বের করে দুই হাত একসঙ্গে করে অনেকটা গুলি করার ভঙ্গিতে আমাদের অফিসারদের মুখোমুখি হয় তখন অফিসারদের একজন তাকে গুলি করেন। ’ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ওলাঙ্গোর হাতে আসলে ইলেকট্রনিক সিগারেট ছিল। এর সিলভার রঙের সিলিন্ডার ছিল এবং ওলাঙ্গো সিগারেটের বাক্সকে ধরে রেখেছিল।

পুলিশ ওই ঘটনার একটি ভিডিও থেকে একটা স্থির চিত্র প্রকাশ করেছে, যেখানে দেখা যাচ্ছে একটি লোক গুলি করার ঢংয়ে দাঁড়িয়ে আছে। ফেসবুকে একজন প্রত্যক্ষদর্শী ঘটনার ভিডিও পোস্ট করেছে। সেখানে দেখা যায় একজন বিহ্বল নারী তাঁর মানসিকভাবে অসুস্থ ভাইকে সাহায্য করার জন্য পুলিশ ডাকছেন। ভিডিওতে দেখা যায় কান্নারত নারী বলছেন, ‘তুমি এসে আমার ভাইকে হত্যা করেছ। আমার ভাইকে সাহায্য করার জন্য তোমাকে ডাকলাম আর তুমি আমার সামনে আমার ভাইকে হত্যা করলে। ’ স্বজনরা জানিয়েছে, ওলেঙ্গো উগান্ডা থেকে আসা শরণার্থী।

বাবাকে হত্যার পর স্কুলে গিয়ে গুলি : যুক্তরাষ্ট্রের মায়ামির একটি প্রাথমিক স্কুলে এক কিশোর বন্দুকধারী গুলি করে তিনজনকে আহত করেছে। বুধবার স্থানীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, এ ঘটনার আগে সে গুলি করে তার বাবাকে হত্যা করে। ছেলেটিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ওই কিশোর বিকেলের দিকে স্কুলের মাঠে গিয়ে অন্য দুটি ছেলের পায়ে গুলি করে। এ ছাড়া এক শিক্ষকের কাঁধে গুলি করে সে। সূত্র : এএফপি।


মন্তব্য