kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


আলেপ্পোয় হাসপাতাল ও বেকারিতে বোমা হামলা

আরো একটি শহরের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে সরকারি বাহিনী

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



সিরিয়ার পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণকারী সংস্থা সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস জানিয়েছে, আলেপ্পোর বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত অন্য একটি শহরে একটি বেকারি এবং দুটি বড় হাসপাতালে বোমা হামলা হয়েছে। এতে কয়েক ডজন লোক মারা গেছে।

শহরটি পুনর্দখলের লড়াইয়ে সিরীয় বাহিনী রাশিয়া বাহিনীর সহায়তায় অভিযান জোরদার করায় বেসামরিক এ স্থানগুলো হামলার শিকার হচ্ছে। সামরিক সূত্রের বরাত দিয়ে সিরিয়ার সরকারি গণমাধ্যম জানিয়েছে, সরকারি বাহিনী আলেপ্পোর মধ্যাঞ্চলের ফারাফিরা জেলার নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্র সিরিয়ার যুদ্ধে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের জন্য বাড়তি আরো ৩৬ কোটি ৪০ লাখ ডলার সহায়তা দেওয়ার অঙ্গীকার করেছে। মার্কিন কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যম জানায়, ওই অঞ্চলের যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশগুলো এবং শরণার্থীদের খাদ্য, নিরাপদ পানি ও চিকিৎসা সরঞ্জামাদি সরবরাহে জাতিসংঘ এবং অন্য দাতা সংস্থাগুলোকে সহায়তা করবে এই তহবিল।

সিরিয়ার সরকারি গণমাধ্যম জানায়, মঙ্গলবার আলেপ্পোর কেন্দ্রস্থল আল-ফারাফিরাহ থেকে বিদ্রোহীদের হটিয়ে দেওয়া হয়েছে। পুরো এলাকাটি এখন সরকারি বাহিনীর নিয়ন্ত্রণে। পালিয়ে যাওয়ার সময়ে ভারী মেশিনগানসহ প্রচুর পরিমাণে অস্ত্র ও গোলাবারুদ ফেলে গেছে বিদ্রোহীরা। সরকারি সেনারা এখন ওই এলাকায় পুঁতে রাখা মাইন পরিষ্কার করছেন।

সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস জানায়, গতকাল আলেপ্পোর পূর্বাঞ্চলে বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত একটি এলাকায় একটি বেকারি এবং দুটি হাসপাতালে বোমা হামলা হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত হাসপাতালের রেডিওলজিস্ট মোহাম্মদ আবু রাজাব বলেন, ‘রাত প্রায় ৪টার দিকে যুদ্ধবিমান আমাদের ওপর দিয়ে উড়ে যায় এবং সেটি থেকে সরাসরি আমাদের হাসপাতাল লক্ষ্য করে ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়। এতে ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে থাকা রোগীদের ওপর হাসপাতালের ছাদের ধ্বংসাবশেষ ভেঙে পড়ে। ’ এদিন ওই এলাকার একটি বেকারিতেও কামানের গোলায় অন্তত ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। সূত্র : এএফপি।


মন্তব্য