kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


কলম্বিয়ায় ঐতিহাসিক শান্তিচুক্তি স্বাক্ষরিত

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



কলম্বিয়া সরকার ও রেভল্যুশনারি আর্মড ফোর্সেস অব কলম্বিয়ার (ফার্ক) বিদ্রোহীদের মধ্যে ঐতিহাসিক শান্তিচুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। সোমবার এই চুক্তির মধ্য দিয়ে দেশটিতে ৫২ বছরের গৃহযুদ্ধের অবসান হলো।

এই দীর্ঘ লড়াইয়ে দেশটিতে দুই লাখেরও বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছে। অভ্যন্তরীণভাবে বাস্তুচ্যুত হয়েছে ৬০ লাখ মানুষ।

কিউবায় চার বছর ধরে শান্তি আলোচনা হওয়ার পর সোমবার প্রথমবারের মতো কলম্বিয়ার মাটিতে দেশটির প্রেসিডেন্ট হুয়ান মানুয়েল সান্তোস (৬৫) ও ফার্কের নেতা তিমোলিওন তিমোচেনকো জিমেনেস (৫৭) পরস্পরের সঙ্গে উষ্ণ করমর্দন করেন। এরপর সাদা একটি কলম দিয়ে তাঁরা চুক্তিতে সই করেন। ঐতিহাসিক এই চুক্তি অনুষ্ঠানে সমবেতরা ‘কলম্বিয়া দীর্ঘজীবী হোক, শান্তি দীর্ঘজীবী হোক’ বলে স্লোগান  দেয়।

এ চুক্তি স্বাক্ষর করতে যে কলম ব্যবহৃত হয় সেটি বুলেট থেকে তৈরি।

চুক্তির পর তিমোচেনকো দুই পক্ষের সংঘাতের শিকার সবার কাছে ক্ষমা চেয়েছেন। এ সময় তাঁকে হাততালি দিয়ে ব্যাপক অভিনন্দন জানানো হয়। তিনি বলেন, ‘আমাদের এ যুদ্ধ চলাকালে যাঁরা কষ্ট পেয়েছেন তাঁদের সবাইকে আমি সেসব দুঃখ-কষ্ট ভুলে যেতে বলব। ’ শান্তির প্রতীক হিসেবে কার্তাহেনায় ওই অনুষ্ঠানে অতিথিরা সাদা পোশাক পরে আসেন।

প্রেসিডেন্ট সান্তোস বলেন, ‘অর্ধশতক ধরে সহিংসতার কালরাত্রির যে ছায়া আমাদের ঢেকে রেখেছিল তার অবসান হয়েছে। একটি নতুন ভোরের প্রতি আমাদের হৃদয় মেলে ধরেছি, একটি উজ্জ্বল সম্ভাবনাময় সূর্য কলম্বিয়ার আকাশে উদয় হয়েছে। ’ তিমোচেনকো বলেন, এই শান্তিচুক্তির মধ্য দিয়ে ফার্ক সশস্ত্র সংঘাতের পথ পরিহার করে শান্তিপূর্ণ রাজনীতিতে অংশ নেবে। এখন থেকে তারা একটি দেশের রাজনৈতিক দলে পরিণত হবে। সূত্র : এএফপি।


মন্তব্য