kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


পুরুষ অভিভাবকত্ব বাতিলের দাবি তুলেছে সৌদি নারীরা

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



সৌদি আরবে পুরুষতান্ত্রিক সমাজব্যবস্থা থেকে মুক্তি পেতে উদ্যোগী হয়েছে নারীরা। দেশটিতে নারীদের কাজ বা লেখাপড়া করা, বিদেশে যাওয়া, অনেক সময় ফ্ল্যাট ভাড়া এমনকি হাসপাতালে চিকিৎসা নিতেও পুরুষ অভিভাবকের অনুমতি লাগে।

এই প্রথার অবসান চেয়ে ১৪ হাজারের বেশি নারীর সই করা একটি আবেদন দেওয়া হয়েছে সরকারের কাছে।

কঠোর ইসলামিক অনুশাসনে চলা দেশটিতে নারীদের এমন আবেদন এটিই প্রথম। সৌদি আরবের নারী অধিকারকর্মী আজিজা আল-ইউসেফ সরকারের কাছে আবেদনটি জমা দেন। টুইটারে হ্যাসট্যাগের মাধ্যমেও অনলাইনে এই দাবির পক্ষে প্রচার চালানো হচ্ছে। অনেক নারী সেখানে ‘আমিই আমার অভিভাবক’ লেখা ব্রেসলেটের ছবি শেয়ার করছে। কয়েক শ নারী সৌদি বাদশাহর কার্যালয়ে ই-মেইল পাঠিয়েছে।

আবেদনটি সৌদি রাজপ্রাসাদে নিয়ে গিয়েছিল নারীরা, কিন্তু প্রাসাদ থেকে তাদের দাবিদাওয়া ই-মেইল করে পাঠিয়ে দিতে বলা হয়। নারী অধিকারকর্মী আজিজা আল-ইউসেফ বলেন, তিনি এ উদ্যোগের জন্য গর্ব বোধ করেন। আজিজা এর আগে সৌদি নারীদের গাড়ি চালানোর অধিকার দেওয়ার আন্দোলনেও যোগ দিয়েছিলেন। এ কারণে ২০১৩ সালে পুলিশ তাঁকে আটক করেছিল।

নারীদের দাবিগুলোর একটি হচ্ছে মেয়েদের বয়স ১৮ বা ২১ পার হলে তাকে যেন একজন প্রাপ্তবয়স্ক বলে বিবেচনা করা হয়। এ ব্যাপারে সৌদি সরকারের কোনো প্রতিক্রিয়া এখনো জানা যায়নি।

সূত্র : বিবিসি।

 


মন্তব্য