kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


দেশ-বিদেশে আলোচনা

স্বভাব লুকাতে পারেননি ট্রাম্প

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



স্বভাব লুকাতে পারেননি ট্রাম্প

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে হফস্টার ইউনিভার্সিটিতে স্থানীয় সময় সোমবার রাতে দেশের দুই প্রেসিডেন্ট প্রার্থী যে বাগ্যুদ্ধে নেমেছিলেন, তাতে কে জয়ী হয়েছেন—এমন প্রশ্নের উত্তরে ডেমোক্র্যাট হিলারি ক্লিনটনের দিকেই জনসমর্থনটা বেশি। সিএনএনের জরিপ সে কথাই বলছে।

দেশি-বিদেশি বিশেষজ্ঞদের অভিমত অবশ্য নানামুখী।

যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদমাধ্যম সিএনএনের তাৎক্ষণিক জরিপে দেখা গেছে, ৫২১ জন ভোটারের ৬২ শতাংশের মতে, বিতর্কে হিলারি জয়ী হয়েছেন। অন্যদিকে রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পকে জয়ী মনে করেন ২৭ শতাংশ ভোটার। দেশটির এক বিশ্লেষক সংস্থা ব্রুকিংস ইনস্টিটিউশনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জন হুড্যাক একবাক্যে বলেন, ‘বোঝাই তো যাচ্ছে, ট্রাম্পের চেয়ে ভালো করেছেন হিলারি। ’ আইওয়া স্টেট ইউনিভার্সিটির রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক স্টিফেন স্মিদ অবশ্য বলেন, ‘অনানুষ্ঠানিকতা আর প্রায় ক্ষেত্রে অসংগঠিত বক্তব্য ব্যবহার করে ট্রাম্প তাঁর স্বভাব আরো বেশি করে তুলে ধরেছেন। কথার সালাদে তিনি উদ্ভটভাবে নানা উপাদান মিশিয়েছেন, কিন্তু প্রায় ক্ষেত্রে রসিকতা ও চাতুর্যের সঙ্গেই তিনি সেটা করেছেন। ’

ব্রিটিশ দৈনিক টেলিগ্রাফের কলামলেখক টিম স্ট্যানলি মনে করেন, বিতর্কে ট্রাম্প জিতেছেন বটে। কিন্তু নির্বাচনে তিনি সম্ভবত হারবেন। স্ট্যানলি বলেন, ‘সরাসরি টেলিভিশন অনুষ্ঠানের বিচারে তিনি ভালো করেছেন। ’ কিন্তু ট্রাম্প যে অশ্বেতাঙ্গ ও নারী ভোটারদের মন জয় করার মতো কিছু বলেননি এবং তাঁর আচরণটা যে প্রেসিডেন্টসুলভ ছিল না, সে কথা বলতে ভোলেননি এ বিশেষজ্ঞ।

জার্মানির ভাইস চ্যান্সেলর সিগমার গ্যাব্রিয়েলের মতে, বিতর্কে হিলারি জিতেছেন এবং ট্রাম্পের উপস্থাপনায় মারাত্মক দুর্বলতা ছিল। তিনি বলেন, ‘ট্রাম্প কোনো পরিকল্পনা উপস্থাপন করেননি। না যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাপারে, না বড় কোনো পররাষ্ট্রনীতির ব্যাপারে। ’ অন্যদিকে হিলারি তাঁর দক্ষতা ও স্পষ্টতা দিয়ে দর্শকের ওপর প্রভাব ফেলেছেন বলে মনে করেন এ জার্মান নেতা।

জাপানের ন্যাশনাল গ্র্যাজুয়েট ইনস্টিটিউট ফর পলিসি স্টাডিজের নিরাপত্তা ও আন্তর্জাতিক অধ্যয়নবিষয়ক পরিচালক নারুশিগে মিকিশিতা জানান, জাপান ও যুক্তরাষ্ট্রের অন্য মিত্ররা নিজেদের প্রতিরক্ষাব্যবস্থায় যথেষ্ট মনোযোগ দিচ্ছে না বলে ট্রাম্প যে সমালোচনা করেছেন, তা ঠিক নয়। একই ধরনের মনোভাব প্রকাশ করেছেন জাপানের আরেক বিশেষজ্ঞ হিরোতসুগু আইদা। সেই সঙ্গে তিনি এটাও বলেন, ‘ট্রাম্প অপ্রত্যাশিতভাবে প্রেসিডেন্টসুলভ আচরণ করেছেন। এটা হয়তো হিলারিকে পিছু হটিয়ে দেবে। ’ সূত্র : এএফপি, এপি।

 


মন্তব্য