kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


হত্যায় অভিযোগ গঠন শার্লটের পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



হত্যায় অভিযোগ গঠন শার্লটের পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে

যুক্তরাষ্ট্রের ওকলাহোমা অঙ্গরাজ্যের তুলসায় এক কৃষ্ণাঙ্গকে গুলি করে হত্যাকারী পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ আনা হয়েছে। এই নারী পুলিশ কর্মকর্তাকে ৫০ হাজার ডলার জামানতের ভিত্তিতে জামিনও দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার রাষ্ট্রপক্ষের এক আইনজীবী এ কথা জানিয়েছেন।

একদিকে ওই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় শুক্রবার তৃতীয় দিনের মতো শার্লটে বিক্ষোভ হয়েছে। তবে জরুরি অবস্থার মধ্যে চলা এই দিনের বিক্ষোভ অনেকটা শান্তিপূর্ণ ছিল।

গত সপ্তাহে বেটি শেলবি নামের ওই পুলিশ কর্মকর্তা কৃষ্ণাঙ্গ টেরেন্স ক্রাচারকে গুলি করে হত্যা করেন। ওই সময় ক্রাচার তাঁর নষ্ট হয়ে পড়া গাড়ির পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন এবং নিরস্ত্র ছিলেন।

শেলবি দাবি করেন, ক্রাচার তাঁর নির্দেশ অমান্য করছিলেন এবং তিনি গাড়ির কাছাকাছি যাওয়ার চেষ্টা করলে জানালা দিয়ে ক্রাচার গুলি করার চেষ্টা করেন।

কিন্তু টুলসা কাউন্টির সরকারি কৌঁসুলি স্টিভ কুনজোউইলার তাঁর বিরুদ্ধে মানুষ হত্যার অভিযোগ দায়েরের কথা জানিয়ে বলেন, ‘অভিযোগে বলা হয়েছে, অহেতুক আতঙ্কের কারণে শেলবি গুলি করে বসেন। তাঁর ওই আচরণ ছিল অপ্রয়োজনীয় ও অযৌক্তিক। ’ শেলবিকে অভিযুক্ত করায় ক্রাচারের যমজ বোন টিফানি বলেছেন, ‘আমরা ছোট একটি জয় পেলাম। ’

শেলবির আইনজীবী স্কট উড আদালতে জানান, শেলবি মনে করেছিলেন ক্রাচার ড্রাগ সেবন করা অবস্থায় ছিলেন। ক্রাচারের গাড়িতে ড্রাগ পাওয়া গেছে। ক্রাচারের পরিবার পুলিশের এ অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছে। তারা দাবি করে, গুলির সময় গাড়ির জানালা বন্ধ ছিল। পুলিশ ক্রাচারের গাড়িতে কোনো আগ্নেয়াস্ত্র পায়নি।

নর্থ ক্যারোলিনার শার্লটে ওই হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার তৃতীয় রাতেও বিক্ষোভ হয়েছে। কারফিউ অগ্রাহ্য করে গভীর রাত পর্যন্ত রাজপথে ছিল জনতা। স্ল্লোগান দিয়ে, গান গেয়ে তারা ওই হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদ জানায়। পুলিশ কর্মকর্তা ক্যাপ্টেন মাইক কাম্পাঙ্গনা জানান, এই রাতে প্রতিবাদকারীরা শান্তিপূর্ণ থাকায় কারো বিরুদ্ধে কারফিউ ভঙ্গের অভিযোগে পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। সূত্র : সিএনএন, বিবিসি


মন্তব্য