kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


যুক্তরাষ্ট্র-রাশিয়ার দোষারোপ চলছেই

আলেপ্পোতে নতুন হামলা শুরু

নিহতের সংখ্যা ৩০ জনে দাঁড়িয়েছে

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



আলেপ্পোতে নতুন হামলা শুরু

সিরিয়ায় অস্ত্র বিরতি চুক্তি তো ভেঙে পড়েছেই, যুক্তরাষ্ট্র-রাশিয়ার নেতৃত্বাধীন ইন্টারন্যাশনাল সিরিয়া সাপোর্ট গ্রুপের আলোচনাও ভেস্তে গেছে। আর এর পরই সিরিয়ার বিদ্রোহী অধ্যুষিত আলেপ্পোতে শুরু হয়েছে সরকারি বাহিনী ও রাশিয়ার প্রচণ্ড বিমান হামলা।

বিদ্রোহীদের কাছ থেকে আলেপ্পোর পুরো দখল নিয়ে নিতে সঙ্গে যোগ দিয়েছে সিরিয়ার স্থলবাহিনীও। এরই মধ্যে নিহতের সংখ্যা ৩০ জনে দাঁড়িয়েছে। আক্রমণ থেকে রেহাই পাচ্ছে না আবাসিক ভবন এমনকি উদ্ধারকর্মীদের ক্যাম্পও।

যুক্তরাষ্ট্র-রাশিয়া ঘোষিত সিরিয়া অস্ত্র বিরতি চুক্তি গত ২০ নভেম্বর থেকে কার্যকর হয়। সপ্তাহ না পোরোতেই তা ভেঙে পড়ে। এরপর সিরিয়া নিয়ে আলোচনার জন্য গত বৃহস্পতিবার রাতে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে বৈঠকে বসে ইন্টারন্যাশনাল সিরিয়া সাপোর্ট গ্রুপ। কিন্তু কোনো ঐকমত্য ছাড়াই আলোচনা ভেস্তে যায় এবং আলেপ্পোতে নতুন করে পুরোদমে বিমান হামলা শুরু করে সিরিয়ার সরকারি বাহিনী ও রাশিয়া। গতকাল শুক্রবারও আলোচনায় বসার আগ্রহ প্রকাশ করেন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি। কিন্তু তাতে কোনো সাড়া মেলেনি। গত বুধবার জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকেও কেরি রাশিয়া ও সিরিয়া সরকারের প্রতি বিমান হামলা বন্ধ রাখার আহ্বান জানান। সেই আহ্বান উপেক্ষা করেই আলেপ্পোতে হামলা শুরু হয়েছে।

নতুন করে অভিযান শুরুর ঘোষণা দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সিরিয়ার সরকারি বাহিনী আলেপ্পোর বিদ্রোহী অধ্যুষিত এলাকা থেকে সাধারণ মানুষকে দূরে থাকার পরামর্শ দিয়েছে। যুক্তরাজ্যভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস জানায়, বৃহস্পতিবার রাতভর হামলা হয়েছে। শুক্রবার সকালেও হামলা অব্যাহত ছিল। সব মিলিয়ে কমপক্ষে ৩০টি বিমান হামলা হয়েছে। এরই মধ্যে ৩০ জন নিহতের সংবাদ পাওয়া গেছে। এদিকে রাতভর হামলায় ফসফরাস বোমা ব্যবহারের অভিযোগ করেছে আলেপ্পোতে কর্মরত সহায়তাকর্মীরা। এ ছাড়া স্বেচ্ছাসেবা সংগঠন হোয়াইট হেলমেটস আরো জানায়, সহায়তাকর্মীদের ক্যাম্পগুলোও বিমান হামলা থেকে রেহাই পাচ্ছে না। এরই মধ্যে তাদের চারটি ক্যাম্পের তিনটির কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়েছে তারা।

ইন্টারন্যাশনাল সিরিয়া সাপোর্ট গ্রুপের আলোচনা প্রসঙ্গে জাতিসংঘের সিরিয়াবিষয়ক দূত স্তাফান দ্যে মিস্তুরা বলেন, ‘এটা ছিল দীর্ঘ, বেদনাদায়ক ও হতাশাজনক বৈঠক। ’ তবে যুক্তরাষ্ট্র-রাশিয়া চুক্তির ব্যাপারে আন্তরিক মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘তারা এখনো চেষ্টা করে যাচ্ছে। সুতরাং চুক্তি অকার্যকর হয়ে গেছে বলাটা ভুল হবে। ’ সেই সঙ্গে তিনি এটাও বলেন, ‘তবে আলেপ্পোয় যেটা ঘটছে, সেটাকে হামলাই বলতে হবে। সেখানে সবগুলো পক্ষ আবার যুদ্ধে জড়িয়ে পড়ছে। ’ বৈঠক ব্যর্থ হওয়ার জন্য তিনি আলোচনায় উপস্থিত

অন্য পক্ষগুলোকে দায়ী করেন। সূত্র : এএফপি, বিবিসি।


মন্তব্য