kalerkantho

শুক্রবার । ২ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


সন্দেহভাজন রাহামিকে চিকিৎসা দেওয়ায় ট্রাম্পের খেদ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



সন্দেহভাজন রাহামিকে চিকিৎসা দেওয়ায় ট্রাম্পের খেদ

নিউ ইয়র্কে বোমা হামলার ঘটনায় সন্দেহভাজন আহমেদ খান রাহামিকে গ্রেপ্তারের পর সরকারি ব্যয়ে তাঁর চিকিৎসা ও আইনি সহায়তা দেওয়া নিয়ে খেদ ঝেড়েছেন প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। এদিকে তাঁর বড় ছেলে সিরীয় অভিবাসীদের ‘বিষাক্ত চকোলেটের’ সঙ্গে তুলনা করায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনার ঝড় বইছে।

গত সোমবার নিউ জার্সিতে পুলিশের সঙ্গে গোলাগুলির পর গ্রেপ্তার হন আফগানিস্তানে জন্ম নেওয়া মার্কিন নাগরিক ২৮ বছর বয়সী রাহামি। তাঁর বিরুদ্ধে মানুষ হত্যার চেষ্টার অভিযোগ আনা হয়েছে। শনিবার নিউ ইয়র্কের ওই বোমা হামলায় ২৯ জন আহত হয়। রাহামিকে চিকিৎসা দেওয়া নিয়ে ফ্লোরিডার ফোর্ট মায়ার্সে এক নির্বাচনী জনসভায় ট্রাম্প বলেন, ‘অবাক ব্যাপার, আমরা এখন তাঁকে (রাহামিকে) বিনা খরচে চিকিৎসা করাব। বিশ্বের অন্যতম সেরা চিকিৎসকরা তাঁর যত্ন নেবেন। এটি একটি খারাপ দিক। ’ তিনি খেদের সঙ্গে বলেন, ‘হাসপাতালে তাঁকে এখন সর্বাধুনিক কক্ষে রাখা হবে। যুক্তরাষ্ট্রের চিকিৎসাসেবা পুরোটাই হয়তো তাঁকে দেওয়া হবে। ’ তিনি দুঃখ করে বলেন, ‘ওই ব্যক্তিকে দেওয়া যেকোনো শাস্তিই অনেক কম হয়ে যাবে। ’

ট্রাম্প আবারও যুক্তরাষ্ট্রে আসতে চাওয়া অভিবাসীদের ‘কঠোর পরীক্ষা’ নেওয়ার আহ্বান জানান।

এদিকে ট্রাম্পের ছেলে ডোনাল্ড ট্রাম্প জুনিয়র টুইটারে এক বাটি গোল চকোলেটের (স্কিটলস) ছবি দিয়ে লিখেছেন, ‘আমি যদি এক বাটি স্কিটলস নিয়ে আপনাদের বলি, এর তিনটি খেলেই মারা যাবেন, তাহলে আপনারা কি মুঠোভরে এটা নেবেন?’ এরপর তিনি বলেন, ‘সিরীয় শরণার্থীরা এরকমই আমাদের জন্য সমস্যা। ’ তাঁর এ বক্তব্য নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা চলছে। সূত্র : এএফপি।


মন্তব্য