kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


জাতিসংঘ সম্মেলন

শরণার্থী সংকট সামাল দেওয়ার অঙ্গীকার

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



শরণার্থী সংকট সামাল দেওয়ার অঙ্গীকার

দারিদ্র্য, দ্বন্দ্ব, রাজনীতি ও অর্থনৈতিক টানাপড়েনে চরমে ওঠা অভিবাসী ও শরণার্থী সংকট সামাল দিতে ঐক্যবদ্ধ ঘোষণা দিয়েছে জাতিসংঘের সব সদস্য দেশ। গত সোমবার সংস্থার ১৯৩ সদস্যবিশিষ্ট সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে এ ব্যাপারে প্রস্তাব গৃহীত হয়।

সাধারণ অধিবেশনে এদিন আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার (আইওএম) সঙ্গে জাতিসংঘের একটি চুক্তি হয়। এর মধ্য দিয়ে আইওএম জাতিসংঘের সঙ্গে যুক্ত হলো, যা আন্তর্জাতিক পর্যায়ে অভিবাসনসংক্রান্ত আলোচনা আরো জোরালো করবে বলে বিশ্লেষকদের অভিমত।

অভিবাসী ও শরণার্থী সংকট মোকাবিলাই এবারের জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনের মূল বিষয় ছিল। অধিবেশনে সদস্য দেশগুলো বেশ কয়েকটি বিষয়ে অঙ্গীকারবদ্ধ হয়। এর মধ্যে রয়েছে আন্তর্জাতিক সম্মেলন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে আলোচনা শুরু করা এবং নিরাপদ, সুশৃঙ্খল ও নিয়মিত অভিবাসনের লক্ষ্যে ২০১৮ সালে একটা বৈশ্বিক চুক্তিতে উপণীত হওয়া, ঝুঁকিপূর্ণ পরিস্থিতিতে অভিবাসীদের সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করার জন্য নির্দেশিকা তৈরি করা, বিপুলসংখ্যক অভিবাসীর গুরুভার ও দায়দায়িত্ব যথাযথভাবে ভাগাভাগি করে নিতে ২০১৮ সালে একটি বৈশ্বিক চুক্তি করা।

প্রসঙ্গত, সাধারণ অধিবেশনের এই ঘোষণায় সব সদস্যের সমর্থন থাকলেও এগুলো মানার কোনো আইনি বাধ্যবাধকতা নেই। তবে সংস্থার বিদায়ী মহাসচিব বান কি মুন মনে করেন, এই ঘোষণার মানে হলো, আরো অনেক শিশু স্কুলে যেতে পারবে, আরো কর্মী নিরাপদে বিদেশে চাকরির খোঁজে যেতে পারবে, অপরাধী পাচারকারীদের কোনো ছাড় দেওয়া হবে না। সর্বোপরি দেশে দেশে সহিংসতা বন্ধ হওয়ার পর ঘরহারা মানুষ শান্তিপূর্ণ বসবাসের ব্যাপারে সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়ার সুযোগ পাবে। সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া।


মন্তব্য