kalerkantho


বেলজিয়ামে চিকিৎসকের সহায়তায় এক শিশুর মৃত্যু অনুমোদন

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



বেলজিয়ামে প্রথমবারের মতো প্রচণ্ড অসুস্থ এক শিশুকে চিকিৎসকের সহায়তায় জীবনাবসানের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। তবে তার সম্পর্কে আর কোনো তথ্য প্রকাশ করা হয়নি।

বর্তমান বিশ্বে বেলজিয়াম একমাত্র দেশ, যেখানে শারীরিক পরিস্থিতি বিবেচনায় যেকোনো বয়সী মানুষকে ইউথ্যানেজিয়া তথা চিকিৎসকের সহায়তায় মৃত্যুর অনুমতি দেওয়া হয়।

বেলজিয়ামের কেন্দ্রীয় ইউথ্যানেজিয়া কমিশনের উইম ডিসটেলম্যানস জানান, স্থানীয় একজন চিকিৎসক গত সপ্তাহে এক শিশুর ইউথ্যানেজিয়ার আবেদনের বিষয়টি কমিটির নজরে আনেন। তাঁকে অনুমতি দেওয়া হয়েছে। বেলজিয়ামের ফরাসি ভাষাভাষি সম্প্রদায় অধ্যুষিত এলাকার কোনো এক শিশুকে এ অনুমতি দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। তবে তার পরিচয় কিংবা বয়স প্রকাশ করা হয়নি।

২০১৪ সালে বেলজিয়ামের পার্লামেন্ট শারীরিক অসুস্থতা বিবেচনায় যেকোনো বয়সী মানুষকে ইউথ্যানেজিয়ার অনুমতি দেওয়ার আইন পাস করে। প্রচণ্ড অসুস্থ কোনো ব্যক্তির শারীরিক যন্ত্রণা তার সহনশীলতার মাত্রা অতিক্রম করলে বারবার আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে তাকে ইউথ্যানেজিয়ার অনুমতি দেওয়া হয়। তবে ইউথ্যানেজিয়ার আবেদনকারীর বয়স ১৮ বছরের কম হলে তাকে অবশ্যই অভিভাবকের অনুমতি নিতে হবে।

বিভিন্ন দেশের হিসাব অনুসারে ইউথ্যানেজিয়ায় মৃত্যুর হার খুব কম। সর্বশেষ নেদারল্যান্ডসে ২০১০ সালের জরিপে দেখা যায়, সেখানে যে পরিমাণ মানুষ মৃত্যু ঘটেছে, তাদের মধ্যে ইউথ্যানেজিয়ায় মৃত্যুর হার ২.৮ শতাংশ। এর আগের হিসাবগুলোতে এ হার ০.৫ শতাংশের নিচে ছিল। সূত্র : বিবিসি।


মন্তব্য