kalerkantho

বুধবার । ৭ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


প্রচারে ফিরেই ট্রাম্পকে হিলারির আক্রমণ

কদর্যতা, গোঁড়ামি বন্ধ করবেন কবে?

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



কদর্যতা, গোঁড়ামি বন্ধ করবেন কবে?

যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন অসুস্থতা কাটিয়ে পুরোদমে প্রচারকাজ শুরু করেছেন। নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হওয়ার কারণে তাঁর কয়েক দিনের অনুপস্থিতিতে প্রতিদ্বন্দ্বী ডোনাল্ড ট্রাম্প যতটা এগিয়েছেন, তার সবটা এখন পুষিয়ে নিতে চান দেশের প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট প্রার্থী।

গত বৃহস্পতিবার হিলারি উত্তর ক্যারোলাইনার গ্রিনসবরো এলাকায় নির্বাচনী সভায় যোগ দিয়েই ট্রাম্পকে আক্রমণ করেন। তিনি বলেন, ‘দেখুন, ড. ওজের অনুষ্ঠানে তিনি (ট্রাম্প) কী করেছেন। আমি আমার প্রতিদ্বন্দ্বীর মতো ওরকম প্রদর্শনী করব না। ’ না বললেই নয়, গত রবিবার হিলারি হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়ার পর ট্রাম্প নিজের সুস্থতার প্রমাণ হিসেবে স্বাস্থ্য পরীক্ষার নানা বিষয় তুলে ধরেন। ড. ওজ উপস্থাপিত আমেরিকার এক টেলিভিশন অনুষ্ঠানে ট্রাম্প তাঁর ওই সব স্বাস্থ্যতথ্য তুলে ধরেন। তাঁর চিকিৎসক তাকে ‘চমৎকার স্বাস্থ্যের অধিকারী’ বলে ঘোষণা দেন।

গ্রিনসবরোতে উপস্থিত উচ্ছ্বসিত সমর্থকদের উদ্দেশে হিলারি বলেন, ‘নির্বাচনী প্রচারে ফিরতে পেরে খুবই ভালো লাগছে। নির্বাচনের দুই মাস আছে। এর আগে এটাই গৃহকোণে আমার শেষ বিশ্রাম। ’ সমর্থকদের উদ্দেশে তিনি ঘোষণা দেন, প্রতিদ্বন্দ্বী ট্রাম্প যেসব এলাকার জনগণের সঙ্গে সম্পর্কোন্নয়নের চেষ্টা করছেন, সেসব এলাকায় গণসংযোগ করাটাই তাঁর আগামী সপ্তাহের লক্ষ্য। এসব এলাকার মধ্যে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গরাজ্য ফ্লোরিডাও রয়েছে।

গ্রিনসবরোর সভা শেষে হিলারি ওয়াশিংটনে কংগ্রেশনাল হিস্পানিক ককাস ইনস্টিটিউটে এক অনুষ্ঠানে যোগ দেন। হিস্পানিক ঐতিহ্য মাস উপলক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এখানে তিনি ট্রাম্পবিরোধী বক্তব্যে বলেন, ‘এই লোকটা আমাদের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হতে চান? উনি কবে এই কদর্যতা, গোঁড়ামি বন্ধ করবেন?’ উনি নিজেকে এবং নিজের প্রচার কার্যক্রম বদলানোর চেষ্টা করেছেন। উনি সর্বোচ্চ এটুকুই করতে পারেন। উনি এ রকমই। ’

হিলারিকে লন্ডন মেয়রের সমর্থন : লন্ডনের মেয়র হওয়ার পর প্রথম যুক্তরাষ্ট্র সফরে এসে সাদিক খান হিলারির প্রতি পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছেন। গত বৃহস্পতিবার শিকাগোতে যাত্রাবিরতির সময় লন্ডনের প্রথম মুসলিম মেয়র সাদিক সাংবাদিকদের জানান, তিনি হিলারির বড় ভক্ত। তিনি বলেন, তর্ক থাকলেও হিলারি সবচেয়ে অভিজ্ঞ প্রেসিডেন্ট প্রার্থী। তিনি আরো বলেন, ‘আমি মনে করি, একজন নারী বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর রাজনীতিক হওয়াটা বিস্ময়কর এবং আশা করি তিনি জিতবেন। ’

ট্রাম্প সম্পর্কে সাদিকের বক্তব্য, ট্রাম্প যেভাবে মুসলিমবিরোধী মতবাদে সমর্থন জুগিয়ে যাচ্ছেন, তাতে বিষয়টা আদতে জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) জন্য ইতিবাচক হবে। সূত্র : এএফপি, রয়টার্স।


মন্তব্য