kalerkantho

মঙ্গলবার। ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ । ৯ ফাল্গুন ১৪২৩। ২৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ভারতের সর্বোচ্চ আদালতের রায়

সরকারের বিরুদ্ধে মুখ খোলা মানেই রাষ্ট্রদ্রোহ নয়

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



সরকারের নীতির সমালোচনা অর্থাৎ সরকারের বিরুদ্ধে মুখ খোলা মানেই দেশদ্রোহিতা নয়। দেশদ্রোহ নিয়ে সাম্প্রতিককালে ভারতজুড়ে বিতর্কের মধ্যে মঙ্গলবার স্পষ্ট ভাষায় এটাই জানিয়ে দিয়েছে দেশটির সুপ্রিম কোর্ট।

সাম্প্রতিক সময়ে দেশদ্রোহ আইনে ভারতে একের পর এক মামলা করা হয়েছে। বিভিন্ন মহল থেকে এই আইন বাতিলের দাবিও উঠতে শুরু করে। এরকম পরিস্থিতিতে প্রশান্ত ভূষণ নামে একজন আইনজীবী বিষয়টি সর্বোচ্চ আদালতের শরণাপন্ন হয়েছিলেন। তাঁর মতে, ১৯৬২-র দেশদ্রোহ আইনের যথেচ্ছ অপব্যবহার করা হচ্ছে। বহু পুলিশ দেশদ্রোহের অর্থও বোঝেন না।

তাঁর আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল বিচারপতি দীপক মিশ্র ও বিচারপতি ইউ ইউ ললিতের সুপ্রিম কোর্ট বেঞ্চ ভারতীয় দণ্ডবিধির ১২৪-এ ধারার ব্যাখ্যা দিয়ে বলেছেন, সরকারি নীতি ও সরকারের সমালোচনা বা বিরোধিতা করার অধিকার প্রতিটি নাগরিকের রয়েছে। অবশ্যই এর জন্য  কোনো রকম প্ররোচনা বা হিংসার আশ্রয় নিয়ে জনসম্পত্তির ক্ষতি করা বা শান্তি বিঘ্নিত করার অভিপ্রায় থাকবে না সেই নাগরিকের।

সর্বোচ্চ আদালত জানান, ১৯৬২ সালে কেদারনাথ সিংহ বনাম বিহার সরকার মামলায় দেশদ্রোহ আইনের ব্যাখ্যা করা হয়েছিল। দেশদ্রোহ নিয়ে সেই ব্যাখ্যা ৫৪ বছর পরে আজও সমান প্রাসঙ্গিক। তার জন্য নতুন ধারা যোগ করার কোনো প্রয়োজন নেই। সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া।


মন্তব্য