kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


কৃষ্ণাঙ্গদের মন পেতে ঘাম ঝরাচ্ছেন ট্রাম্প

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



কৃষ্ণাঙ্গ ভোটারদের মন জয় করতে রিপাবলিকান পার্টির প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। মূলত শ্বেতাঙ্গ ভোটারদের টানতে নানা তৎপরতা চালানো ট্রাম্প গত শনিবার প্রথম ডেট্রয়েটের একটি কৃষ্ণাঙ্গ গির্জা পরিদর্শন করেন।

ট্রাম্প বর্ণবিদ্বেষী বক্তব্যের জন্য বিশেষভাবে পরিচিত। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আর মাত্র কয়েকটি সপ্তাহ হাতে রেখে সেই বদনাম ঘোচানোর জন্যই জোরদার চেষ্টা শুরু করেছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, বিদ্বেষমূলক বক্তব্যই ট্রাম্পকে দ্রুত পরিচিত করে তোলে। তাঁর আক্রমণ থেকে প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাকেও রেয়াত দেওয়া হয়নি। ট্রাম্প শুরু করেন ওবামার জন্মস্থান নিয়ে প্রশ্ন তুলে। তাঁর দাবি ছিল, ওবামা যুক্তরাষ্ট্রের বাইরে জন্মেছেন। আর প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে তাঁর সর্বশেষ অভিযোগ, ইসলামিক স্টেটের (আইএস) প্রতিষ্ঠাতা ওবামা। তাঁর এসব বক্তব্য তীব্র সমালোচনার মুখে পড়ে।

শুরুর সেই ক্ষতগুলো মেরামতেরই চেষ্টা করছেন ট্রাম্প। গত শনিবার তিনি ‘বেসামরিক মানবাধিকার কর্মসূচি’ প্রণয়নের আহ্বান জানান। ডেট্রয়েটে তিনি বলেন, ‘আমরা জাতি হিসেবে অতিমাত্রায় বিভক্ত। ’ কৃষ্ণাঙ্গ দর্শক-শ্রোতাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনাদের কথা শুনতেই আমি ডেট্রয়েটে এসেছি। ’ তাঁর কথায়, মানুষের উদ্বেগ, দুঃখ, সম্ভাবনার কথা শুনতে চান তিনি। লিখিত বক্তব্য থেকে ট্রাম্প আরো পড়ে শোনান, ‘যখন পিছিয়ে পড়া কৃষ্ণাঙ্গ তরুণদের দেখি, খারাপ লাগে। এদের সম্ভাবনা সীমাহীন। এসব তরুণের সম্ভাবনাকে ব্যবহার করা হচ্ছে না বলেই পিছিয়ে পড়ছে আমাদের দেশ। আমরা একটি দেশ, এক জাতি। এদের কেউ যখন আঘাত পায়, আমাদের সবার শরীরেই সেই আঘাত অনুভূত হয়। ’

এ সময় আফ্রিকান-আমেরিকান কমিউনিটির পক্ষ থেকে তুমুল করতালি দিয়ে ট্রাম্পের বক্তব্যকে স্বাগত জানানো হয়। সাধারণ অর্থে ধরে নেওয়া হয়, আফ্রিকান-আমেরিকানরা ডেমোক্রেটিক পার্টির সমর্থক। সূত্র : এএফপি।


মন্তব্য