kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


যৌন কেলেঙ্কারির অভিযোগ

দিল্লির নারী কল্যাণ মন্ত্রী বরখাস্ত

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



দিল্লির নারী কল্যাণ মন্ত্রী বরখাস্ত

যৌন কেলেঙ্কারিতে জড়িত থাকার অভিযোগে দিল্লির নারী কল্যাণ মন্ত্রী সন্দ্বীপ কুমারকে মন্ত্রিসভা থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। বুধবার রাতে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল সন্দ্বীপকে সরানোর নির্দেশ দেন।

বুধবার গভীর রাতে কেজরিওয়াল এক টুইটার বার্তায় জানান, তাঁর কাছে একটি সিডি এসেছে, যেখানে সন্দ্বীপকে দুই নারীর সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় দেখা গেছে। সিডিটি পাওয়ার আধঘণ্টার মধ্যেই তাঁকে সরানোর ঘোষণা আসে। কুমার নারীকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের পাশাপাশি শিশুকল্যাণ দপ্তরের দায়িত্বেও ছিলেন।

সন্দ্বীপ গতকাল অভিযোগ করেন, রাজনীতিতে দলিত নেতা হিসেবে তিনি দ্রুত ওপরে উঠে আসছিলেন। তাঁকে ফাঁসানো হয়েছে দাবি করে তিনি বলেন, ওই ভিডিওর কোনো সত্যতা নেই। তিনি বলেন, ‘দলিত হওয়ার জন্যই আমাকে ফাঁসানো হচ্ছে। আমি মহাদলিত বাল্মীকি সমাজের মানুষ। ’

কেজরিওয়ালের নেতৃত্বাধীন আম আদমি পার্টির (এএপি) সরকারের উপমুখ্যমন্ত্রী মনীষ সিসোদিয়া জানান, “এএপির মূলনীতিই হলো, দুর্নীতি, কোনো ধরনের অপরাধ বা নৈতিক চরিত্রে কালি লাগে এ রকম কোনো ঘটনা বরদাশত করা হবে না। এর আগেও এক মন্ত্রী এবং পাঞ্জাবের এক নেতার ঘুষ নেওয়ার ঘটনা সামনে এসেছিল, দুজনকেই সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। এসব বিষয়ে আম আদমি পার্টি ‘জিরো টলারেন্ট’। ”

মন্ত্রীকে সরিয়ে দিলেও কেজরিওয়ালের রাজনৈতিক বিরোধীরা এই ঘটনা নিয়ে কটাক্ষ করতে ছাড়ছে না। বিজেপি নেতা ও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ বলছেন, ‘যে আম আদমি পার্টি রাজনীতিতে শুচিতা নিয়ে দম্ভ করে, তারাই আজ দুর্নীতি, অন্তঃকলহ নিয়ে ব্যতিব্যস্ত। ’ সূত্র : এএফপি।


মন্তব্য