kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


কুর্দি যোদ্ধারা তুরস্কের সঙ্গে যুদ্ধবিরতিতে সম্মত

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



কুর্দি যোদ্ধারা তুরস্কের সঙ্গে যুদ্ধবিরতিতে সম্মত

সিরিয়ায় কুর্দি সমর্থিত মিলিশিয়ারা যুক্তরাষ্ট্রের প্রস্তাবে সাড়া দিয়ে মঙ্গলবার তুরস্কের সঙ্গে যুদ্ধবিরতিতে সম্মত হয়েছে। ওয়াশিংটনে যুক্তরাষ্ট্রের একজন সিনিয়র কর্মকর্তা ও কুদি সমর্থিত যোদ্ধারা যুদ্ধবিরতির কথা জানায়, তবে তুরস্ক এ ব্যাপারে এখনো কিছুই জানায়নি।

তারা যুদ্ধবিরতিতে সম্মত কি না, সে বিষয়টি যেমন নিশ্চিত করেনি, তেমনি প্রত্যাখ্যানের কথাও জানায়নি। তবে তুরস্কের ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন মন্ত্রী ওমের সেলিক বুধবার বলেছেন, ‘তুরস্ক ও কুর্দিদের মধ্যে কোনো সমঝোতা বা যুদ্ধবিরতি আমরা কোনো পরিস্থিতিতে গ্রহণ করছি না। তুরস্ক একটি সার্বভৌম এবং আইনসম্মত রাষ্ট্র। ’

ইসলামিক স্টেট (আইএস) ও কুর্দি মিলিশিয়া মুক্ত করতে গত বুধবার তুরস্ক নজিরবিহীনভাবে সীমানা অতিক্রম করে সিরিয়ায় ঢুকে পড়ে। সিরিয়ার উত্তর ও উত্তর-পূর্ব এলাকায় আধাস্বায়ত্তশাসিত কুর্দি এলাকা রয়েছে। সেখানকার পিপলস প্রোটেকশন ইউনিটস (ওয়াইপিজি) আইএসের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন জোটের অন্যতম সহযোগী হিসেবে কাজ করছে। ওয়াইপিজি সিরিয়ান ডেমোক্রেটিক ফোর্সেসের (এসডিএফ) অন্যতম সহযোগী, যারা নানা বিষয়ে আইএসের বিরুদ্ধে লড়াই করছে। আঙ্কারা আতঙ্কিত এই ভেবে যে সিরিয়ায় একটি স্বায়ত্তশাসিত কুর্দি অঞ্চলের উদ্ভব হতে পারে, যা তুরস্কের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে বিদ্রোহী কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টিকে (পিকেকে) উজ্জীবিত করে তুলতে পারে।

গত সপ্তাহে তুর্কি বাহিনী বেশ কিছু কুর্দি যোদ্ধাকে হত্যা করেছে। এই অভিযান ওয়াশিংটনকে উদ্বিগ্ন করে তোলে। যুক্তরাষ্ট্র তুর্কি ও কুর্দি বাহিনীর মধ্যে এই লড়াইকে সংযত করার চেষ্টা করে যাচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের সেন্ট্রাল কমান্ড মুখপাত্র কর্নেল জন টমাস বলেন, ‘গত কয়েক ঘণ্টায় আমরা সব পক্ষ থেকে নিশ্চয়তা পেয়েছি যে তারা পরস্পরের বিরুদ্ধে গুলি করা থেকে বিরত থাকেব এবং আইএস মোকাবিলার দিকে মনোযোগী হবে। ’ এদিকে গতকাল বুধবার ইরান আঙ্কারাকে সিরিয়ায় তাদের সামরিক অভিযান দ্রুত শেষ করার আহ্বান জানিয়েছে। সে সঙ্গে তারা এটাও জানিয়েছে, সিরিয়ার সার্বভৌমত্ব লঙ্ঘন অগ্রহণযোগ্য।

সূত্র : এএফপি।


মন্তব্য