kalerkantho


ফিলিপাইনে কৃষকদের ওপর পুলিশের গুলি, নিহত ২

খাদ্যের দাবিতে বিক্ষোভ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৩ এপ্রিল, ২০১৬ ০০:০০



ফিলিপাইনে কৃষকদের ওপর পুলিশের গুলি, নিহত ২

কৃষকদের বিরুদ্ধে পুলিশি সহিংসতার প্রতিবাদে গতকাল রাজপথে ফিলিপিনোরা। রাজধানী ম্যানিলার চিত্র। ছবি : এএফপি

ফিলিপাইনের দক্ষিণাঞ্চলে বিক্ষোভরত কৃষকদের সঙ্গে পুলিশের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হয়েছে। পুলিশের গুলিতে নিহত হয়েছে দুজন।

আহত হয়েছে শতাধিক মানুষ। খরাকবলিত এলাকাটির কয়েক হাজার কৃষক খাদ্যের দাবিতে রাজপথে নেমেছে।

গতকাল শনিবার বিক্ষোভরত কৃষকদের নেত্রী নোরমা ক্যাপুইয়ান বলেন, সংঘর্ষে ১১৬ বিক্ষোভকারী আহত হয়েছে। সংঘর্ষের পর ৮৯ জন নিখোঁজ রয়েছে বলেও দাবি করেন। অন্যদিকে পুলিশ তাত্ক্ষণিকভাবে এ নিহতের ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেনি। উল্টো তাদের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, সংঘর্ষে ৪০ পুলিশ আহত হয়েছে। এদের মধ্যে দুজনের অবস্থা গুরুতর।

ক্যাপুইয়ান গতকাল বলেন, দরিদ্র ও অনগ্রসর কিদাপাওয়ান শহরের মহাসড়ক রক্তে রঞ্জিত হয়ে আছে। শহরটি কোটাবাটো প্রদেশের রাজধানী।

প্রদেশটির ছয় হাজার কৃষক বুধবার থেকে সরকারের কাছে ১৫ হাজার বস্তা চালের দাবিতে বিক্ষোভ করে আসছে।

এ অবস্থায় শুক্রবার পুলিশ বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টা করলে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। বিক্ষোভকারীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছোড়ে। জবাবে পুলিশ তাদের লক্ষ্য করে গুলি চালায়।

ক্যাপুইয়ান বলেন, ‘আমরা চাল চেয়েছিলাম। চাল দেওয়ার পরিবর্তে তারা আমাদের লক্ষ্য করে গুলি চালায়। ’ তিনি বলেন, ‘কৃষকদের খাবারের কিছু না থাকায় তারা অনাহারে রয়েছে। ’

শক্তিশালী এল নিনোর প্রভাবে কয়েক মাস ধরে ফিলিপাইনে খরা চলছে। চরম বৈরী এ আবহাওয়া খাদ্য উত্পাদনে বিরূপ প্রভাব ফেলেছে। এর ফলে দেশটির সবচেয়ে দরিদ্র দক্ষিণাঞ্চলে খাদ্যের অভাব প্রকট আকার ধারণ করেছে। এ অঞ্চলটির বাসিন্দাদের অর্ধেকের বেশি কৃষির ওপর নির্ভরশীল।

ক্যাপুইয়ান আরো বলেন, ‘বিক্ষোভকারীদের সবাই ক্ষুব্ধ ছিলেন। পুলিশ আমাদের আঘাত করছিল। ’ বিক্ষোভকারীরা পুলিশের সঙ্গে টিকতে না পেরে পিছু হটে। তারা পাশের একটি চার্চে অবস্থান নেয়। এই নেত্রী জানান, পুলিশের গুলিতে নিহত দুই কৃষকই পুরুষ। তাদের বয়স ৪০-এর কোঠায়। সূত্র : এএফপি।


মন্তব্য