kalerkantho


শাসকদের সমালোচনা করায় সৌদি আরবে সাংবাদিকের জেল

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৭ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



টুইটারে শাসকদের অপমান এবং জনগণকে উসকানি দেওয়ার অভিযোগে সৌদি আরবে এক সাংবাদিককে পাঁচ বছরের জেল দেওয়া হয়েছে। আলা ব্রিনজি নামের এই সাংবাদিককে ৫০ হাজার রিয়াল জরিমানাও করা হয়েছে।

এ ছাড়া আট বছর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা এবং তাঁর টুইটার অ্যাকাউন্ট বন্ধ রাখার আদেশ দিয়েছেন সন্ত্রাসবিরোধী আদালত।

সৌদি আরবের আল বিলাদ, ওকাজ ও আল শার্ক পত্রিকায় দায়িত্ব পালন করা ব্রিনজির বিরুদ্ধে দেশের পূর্বাঞ্চলের শহর আওয়ামিয়ায় প্রতিবাদকারীদের ওপর গুলি করার জন্য নিরাপত্তা অফিসারদের দায়ী করারও অভিযোগ আনা হয়েছে। এত সব অভিযোগে অভিযুক্ত ব্রিনজি ২০১৪ সালের মে মাস থেকে আটক আছেন। সেই হিসাবে এরই মধ্যে তাঁর প্রায় দুই বছর সাজা ভোগ করা হয়েছে।

সৌদি আরবে শাসকদের আচরণের প্রতিবাদ করায় একের পর এক ব্যক্তিকে জেলে পাঠানো হচ্ছে। শাসকদের এমন আচরণের সমালোচনা করেছে মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। ব্রিনজিকে জেল দেওয়ার সমালোচনা করে তারা বলেছে, ‘এটি আন্তর্জাতিক আইনের সম্পূর্ণ পরিপন্থী এবং সৌদি শাসকরা যে শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদও সহ্য করতে পারছে না এটা এর সর্বশেষ উদাহরণ। ’ সংস্থাটির আঞ্চলিক ডেপুটি প্রধান জেমস লিঞ্চ এ ঘটনাকে‘লজ্জাজনক’ অভিহিত করে বলেছেন, ‘ব্রিনজি সৌদি আরবের শাসকদের শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদের সর্বশেষ শিকার। তারা সমালোচনার সব কণ্ঠস্বর মুছে দেওয়ার লক্ষ্য নিয়ে এগোচ্ছে।

আইনগত মত প্রকাশের স্বাধীনতার শান্তিপূর্ণ অনুশীলনের জন্য এবং অন্য ক্ষেত্রে অধিকার আদায়ে শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদের জন্য কাউকে জেলে দেওয়ার অর্থ বিচারের ধারণাকে সম্পূর্ণ বিকৃত করা। সূত্র : বিবিসি।


মন্তব্য