kalerkantho

সোমবার । ১৬ জানুয়ারি ২০১৭ । ৩ মাঘ ১৪২৩। ১৭ রবিউস সানি ১৪৩৮।


সোনিয়ার আদলে সরকার চালাবেন সু চি

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২২ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



সোনিয়ার আদলে সরকার চালাবেন সু চি

দলের নেতৃত্বের সূত্র ধরে দেশের নেতৃত্বও অং সান সু চির হাতেই থাকছে। ন্যাশনাল লীগ ফর ডেমোক্রেসির (এনএলডি) নেতারা এখন স্পষ্টভাবেই সে কথা বলছেন।

এনএলডির শীর্ষস্থানীয় নেতাদের একজন জ মিন্ত মং গতকাল সোমবার বলেন, ‘তিনি (সু চি) দলকে নেতৃত্ব দেবেন। সুতরাং এই দলের গঠিত সরকারকে তিনিই নেতৃত্ব দেবেন। ’

দলের মুখপাত্র উইন তেইনসহ সু চির বিশ্বস্ত অনেক শীর্ষস্থানীয় নেতা সু চির ভবিষ্যৎ ভূমিকা ভারতের কংগ্রেস দলনেত্রী সোনিয়া গান্ধীর মতো হবে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন। নিজে বিদেশি নাগরিক হওয়ায় কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন সরকারের আমলে সোনিয়া ভারতের প্রধানমন্ত্রী হতে পারেননি। কিন্তু কংগ্রেসপ্রধানের পদে থেকে তিনিই আদতে সরকার পরিচালনায় ভূমিকা রাখেন। মিয়ানমারে সু চিও নতুন সরকারে কোনো গুরুত্বপূর্ণ পদে থাকার পরিবর্তে দলনেত্রী হিসেবে দেশ পরিচালনায় ভূমিকা রাখবেন।

আনুষ্ঠানিকভাবে ক্ষমতা গ্রহণের প্রাক্কালে সু চির ভূমিকা স্পষ্ট করলেন এনএলডি নেতারা। গত ৮ নভেম্বরের নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জনের পর সু চি যখন প্রেসিডেন্টের ওপরে থেকে দেশ পরিচালনার কথা বলেন, তখন সংবাদকর্মীদের প্রশ্ন সত্ত্বেও এর প্রক্রিয়া নিয়ে তিনি মুখ খোলেননি। এমনকি দলের পক্ষ থেকেও স্পষ্ট করে কিছু বলা হয়নি। এমনকি সু চি প্রেসিডেন্ট হিসেবে কাকে বেছে নিচ্ছেন, সে ব্যাপারেও শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত গোপনীয়তা রক্ষা করা হয়। শেষমেষ তাঁর স্কুল জীবনের বন্ধু ও সবচেয়ে বিশ্বস্ত উ তিন কিয়াও গত ১৫ মার্চ প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন। প্রেসিডেন্ট হিসেবে গতকাল তিনি প্রথমবারের মতো পার্লামেন্টে ভাষণ দেন। ভাষণে তিনি সাম্প্রদায়িক দ্বন্দ্বে ক্ষতবিক্ষত মিয়ানমারের নৃতাত্ত্বিক গোষ্ঠীর জন্য নতুন মন্ত্রণালয় প্রতিষ্ঠা করাটা ‘অপরিহার্য’ বলে মন্তব্য করেন।

মিয়ানমারে কয়েক বছরের সাম্প্রদায়িক অস্থিতিশীলতা ও দাঙ্গায় প্রায় দুই লাখ ৪০ হাজার মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়। এ ছাড়া ২০১২ সাল থেকে পশ্চিমাঞ্চলীয় রাখাইন রাজ্যে সাম্প্রদায়িক সহিংসতার শিকার হয়ে লাখো রোহিঙ্গা মুসলমান শরণার্থী শিবিরে মানবেতর জীবন কাটাচ্ছে। সূত্র : এএফপি, রয়টার্স।


মন্তব্য