kalerkantho

26th march banner

আত্মঘাতী মনোভাব থেকে সরে আসেন আবদেসলাম

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২১ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



প্যারিস হামলার সন্দেহভাজন সালাহ আবদেসলাম নিজেকে বোমায় উড়িয়ে দিতে চেয়েছিলেন। কিন্তু পরে তিনি সে সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন। তদন্তকারীদের কাছে এ দাবি করেছেন স্বয়ং আবদেসলাম। ফ্রান্সের একজন আইনজীবী এ কথা জানিয়েছেন। বেলজিয়ামে এক অভিযানের মধ্য দিয়ে আটক হওয়ার এক দিন পর আবদেসলামের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের অভিযোগ আনা হয়েছে।

আবদেসলামের আইনজীবী বলেছেন, তাঁকে ফ্রান্সে ফেরত পাঠানোর বিরুদ্ধে তিনি লড়াই করবেন। তবে আবদেসলাম পুলিশকে সহায়তা করছেন।

গত নভেম্বর মাসে প্যারিসে ভয়াবহ হামলা চালায় সন্ত্রাসীরা। এতে ১৩০ জন নিহত ও আরো বেশ কয়েকজন আহত হয়। ইসলামিক স্টেট (আইএস) জিহাদি সংগঠনটি এ বোমা ও বন্দুক হামলার দায় স্বীকার করে।

বেলজিয়ামের ফেডারেল প্রসিকিউটরের কার্যালয় জানায়, আবদেসলামের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে হত্যা ও একটি সন্ত্রাসী সংগঠনের তৎপরতায় অংশ নেওয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে। প্যারিসের প্রসিকিউটর ফ্রাঁসোয়া মোলিঁস এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘বেলজিয়ামের তদন্ত কর্মকর্তারা আবদেসলামকে জিজ্ঞাসাবাদের সময় তিনি স্বীকারোক্তি দিয়েছেন। তিনি স্তাদ দে ফ্রান্স স্টেডিয়ামে বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়ে নিজেকে উড়িয়ে দিতে চেয়েছিলেন এবং তিনি তাঁর এই পরিকল্পনা থেকে সরে আসেন। ’

২৬ বছর বয়সী ফরাসি নাগরিক আবদেসলাম বেলজিয়ামে জন্মগ্রহণ করেন। চার মাস পালিয়ে থাকার পর শুক্রবার ব্রাসেলসে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরপর থেকে তিনি কারাগারে রয়েছেন।

তদন্ত কর্মকর্তারা আশা করছেন, আবদেসলাম প্যারিস হামলার জন্য দায়ী আইএস নেটওয়ার্ক, সংগঠনটির অর্থের উৎস ও পরিকল্পনার ব্যাপারে আরো তথ্য দেবেন। গ্রেপ্তারের সময় তাঁর পায়ে গুলি করা হয়। তাঁরা বিশ্বাস করেন তিনি রুম ভাড়া ও আত্মঘাতী বোমা হামলাকারীদের গাড়িতে করে স্তাদ দে ফ্রান্সে নিয়ে যাওয়াসহ জঙ্গিদের লজিস্টিক সহায়তা দিয়েছেন। সূত্র : এএফপি।


মন্তব্য