kalerkantho


ট্রাম্প বিরোধিতা

অ্যারিজোনায় সড়ক অবরোধ নিউ ইয়র্কে বিক্ষোভ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২১ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



অ্যারিজোনায় সড়ক অবরোধ নিউ ইয়র্কে বিক্ষোভ

যুক্তরাষ্ট্রের রিপাবলিকান দলের এগিয়ে থাকা প্রেসিডেন্ট মনোনয়ন প্রত্যাশী ডোনাল্ড ট্রাম্পের সমাবেশমুখী একটি মহাসড়ক কিছু সময়ের জন্য অবরোধ করে রেখেছিলেন ট্রাম্পবিরোধীরা। অ্যারিজোনা অঙ্গরাজ্যের ফিনিক্স শহরের বাইরে একটি মহাসড়কে গত শনিবার এ ঘটনা ঘটে।

এদিন অ্যারিজোনার টাকসনে মার্কিন ট্রাম্পের সমাবেশ ছিল। সেখানে এক বিক্ষোভকারীর শার্টের কলার টেনে ধরার অভিযোগ উঠেছে ট্রাম্পের ক্যাম্পেইন ম্যানেজার (প্রচারণা চালানোর ব্যবস্থাপক) লেওয়ানদৌস্কির বিরুদ্ধে। অনলাইনে কলার টেনে ধরার ফুটেজ ছড়িয়ে পড়ার পর ট্রাম্পের প্রচারণাবিষয়ক মুখপাত্র হোপ হিকস বলেছেন, লেওয়ানদৌস্কি নন, তাঁর পাশের ব্যক্তি ওই কাজ করেছেন। ফুটেজে দেখা যায়, সমাবেশে এক বিক্ষোভকারী কালো কোট পরিহিত লেওয়ানদৌস্কি ও আরেক ব্যক্তির সঙ্গে তর্কে লিপ্ত হয়েছেন। তখনই একটি হাত ওই বিক্ষোভকারীর কলার চেপে ধরে।

একই দিন ট্রাম্পের নিজ শহর নিউ ইয়র্কের ম্যানহ্যাটনে ট্রাম্প টাওয়ারের সামনেও প্রায় এক হাজার বিরোধী বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। তরুণ প্রতিবাদকারীদের এই দলটি ট্রাম্পের নিন্দা জানিয়ে স্লোগান দেয় ও ট্রাম্পবিরোধী প্ল্যাকার্ড বহন করে। সেন্ট্রাল পার্ক থেকে মিছিল নিয়ে যাওয়ার সময় তাদের বাধা দিতে পুলিশ পেপার স্প্রে ব্যবহার করেছে বলে অভিযোগ করেছে এদের কয়েকজন। পুলিশকে এখান থেকে একজনকে ধরে নিয়ে যেতে দেখা যায়।

অ্যারিজোনায় শনিবার মহাসড়ক বন্ধ করে দেয় কয়েক ডজন ট্রাম্পবিরোধী। টেলিভিশনের খবরে ফিনিক্সের ঘটনার ফুটেজে দেখা যায়, ‘ডাম্প ট্রাম্প’ ও ‘ট্রাম্পকে আটকাও’ স্লোগান লেখা প্ল্যাকার্ড হাতে বহু ট্রাম্পবিরোধী মহাসড়কে গাড়ি চলাচল বন্ধ করে দিচ্ছে।

এরপর প্রতিবাদকারীরা মহাসড়কটি ধরে মিছিল করে সামনের দিকে এগিয়ে যায়। পরে এদের একটি অংশকে অ্যারিজোনার ফাউন্টেন হিলে ট্রাম্পের সমাবেশের দিকে এগোতে দেখা যায়। ওই সময় ট্রাম্প সমাবেশস্থলে ছিলেন না।

এখান থেকে তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ম্যারিকোপা কাউন্টি পুলিশ। সূত্র : বিবিসি।


মন্তব্য