kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৯ জানুয়ারি ২০১৭ । ৬ মাঘ ১৪২৩। ২০ রবিউস সানি ১৪৩৮।


ইয়েমেনে সামরিক কার্যক্রম সীমিত করার ঘোষণা রিয়াদের

সৌদি জোটের বিরুদ্ধে বেসামরিক মানুষ হত্যার অভিযোগ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৯ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



ইয়েমেনে সামরিক কার্যক্রম সীমিত করার ঘোষণা রিয়াদের

ইয়েমেনে সাধারণ নাগরিকদের ওপর সৌদি আরবের বিমান হামলায় ব্রিটেনের তৈরি অস্ত্র ব্যবহারের প্রতিবাদে লন্ডনের রাস্তায় নেমেছেন মানবাধিকার কর্মীরা। গতকাল তোলা ছবি। - ছবি : এএফপি

সৌদি আরব জানিয়েছে, ইয়েমেনে শিয়াপন্থী হুথি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে তাদের সামরিক তৎপরতা কমিয়ে আনা হবে। সৌদির সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আহমেদ আল-আসিরি বুধবার বলেন, বছরখানেক ধরে চলমান এই অভিযানের ‘সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ পর্যায় শেষ’ হয়েছে। সৌদি আরবের এ সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

এদিকে গত বছরের মার্চ থেকে ইয়েমেনে অভিযান চালানো সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের বিরুদ্ধে আবারও বেসামরিক মানুষ হত্যার অভিযোগ তুলেছে জাতিসংঘ। বিশ্ব সংস্থাটির মানবাধিকার বিষয়ক প্রধান জেইদ রাদ আল হুসেইন বলেন, জোট বাহিনী সাধারণ মানুষের প্রাণহানি এড়াতে ‘একাধিকবার’ ব্যর্থ হয়েছে। হুসেইন অবশ্য ইয়েমেন রণাঙ্গনে লড়াইরত অন্য পক্ষগুলোর বিরুদ্ধেও একই অভিযোগ তুলেছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থনে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট ইয়েমেনের ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট মনসুর হাদিকে পুনরায় ক্ষমতায় বসানোর লক্ষ্যে হুথিবিরোধী অভিযান চালিয়ে আসছে।

জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক প্রধান হুসেইন বলেন, মূলত সৌদি জোটের বিমান হামলায় সাধারণ মানুষের হতাহতের বেশির ভাগ ঘটনা ঘটেছে। ইয়েমেনের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের মাসতাবায় বিমান হামলায় ১০৬ বেসামরিক মানুষ নিহত হওয়ার তিন দিন পর তিনি এ অভিযোগ তুললেন।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনসহ প্রত্যক্ষদর্শীদের সঙ্গে কথা বলার পর হুসেইন জানান, সেখানে কোনো সামরিক লক্ষ্যবস্তুতে হামলা হয়েছে—এমন কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

সৌদি আরব অবশ্য বরাবরই তাদের অভিযানের কারণে সাধারণ মানুষের হতাহতের ঘটনা অস্বীকার করে আসছে। তাদের দাবি, বরাবরই তারা সাধারণ মানুষ যাতে হতাহত না হয়, সে ব্যাপারে সচেষ্ট। অবশ্য মাসতাবার ক্ষেত্রে তারা ঘটনাটি তদন্ত করে দেখবে বলে জানিয়েছে।

পরিসংখ্যান বলছে, ইয়েমেন সংঘাতে এ পর্যন্ত অন্তত ছয় হাজার ২০০ বেসমারিক নাগরিক নিহত হয়েছে। গৃহহীন হয়েছে কয়েক লাখ মানুষ।

ইয়েমেনে সৌদির সামরিক অভিযান সীমিত করে আনার ঘোষণা প্রসঙ্গে হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র হোসে আর্নেস্ট বলেছেন, তাঁরা ইয়েমেন সংকটের রাজনৈতিক সমাধান চান। ‘বড় অভিযানের পর্ব শেষ করে ইয়েমেনে স্থিতাবস্থা বজায় রাখতে সৌদি জোট নেওয়া সিদ্ধান্তকে আমরা স্বাগত জানাই। যুক্তরাষ্ট্র অনেক দিন ধরেই বলে আসছিল, একটি রাজনৈতিক সমাধান ইয়েমেনের জন্য জরুরি এবং যত দ্রুত সম্ভব তার বাস্তবায়ন দরকার। ’ সূত্র : বিবিসি।


মন্তব্য