দক্ষিণ সুদানে বেতনের পরিবর্তে-335272 | দেশে দেশে | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

রবিবার । ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১০ আশ্বিন ১৪২৩ । ২২ জিলহজ ১৪৩৭


জাতিসংঘের প্রতিবেদন

দক্ষিণ সুদানে বেতনের পরিবর্তে ধর্ষণের সুযোগ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৩ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



দক্ষিণ সুদানের একটি মিলিশিয়া বাহিনীকে বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে সরকারি বাহিনীকে সহযোগিতা করার ‘পুরস্কার’ হিসেবে ধর্ষণের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। জাতিসংঘের এক প্রতিবেদনে এ কথা জানিয়ে বলা হয়েছে, বিশ্বে বর্বরতম অপরাধ ঘটে চলেছে এই সুযোগে। গত বছর দেশটির একটি প্রদেশেই ধর্ষণের শিকার হয়েছে এক হাজার ৩০০ নারী। ওই মিলিশিয়ারা নারীদের ধর্ষণ করার পাশাপাশি শিশুদের জীবন্ত পুড়িয়ে মারছে।

বিশ্ব সংস্থাটি বলেছে, এ ঘটনা ভয়াবহ যুদ্ধাপরাধ। দেশটির সেনাবাহিনী সহযোগিতার জন্য ওই মিলিশিয়া বাহিনীকে ‘বেতনের’ এর পরিবর্তে এই ‘পুরস্কার’ দিয়েছে।

মিলিশিয়ারা সাধারণ মানুষের সম্পত্তিও ‘অধিকার বলে’ লুটপাট করছে। তাদের গবাদিপশুও নিয়ে যাচ্ছে বলে জাতিসংঘের প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

গত শুক্রবার প্রকাশ করা প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে,  দক্ষিণ সুদানের সেনাবাহিনী তাদের মিত্র মিলিশিয়া বাহিনীর সঙ্গে ‘যা ইচ্ছা করো এবং যা ইচ্ছা নাও’ চুক্তির কারণে গত বছর দেশটির একটি প্রদেশেই কমপক্ষে এক হাজার ৩০০ নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছে।

দক্ষিণ সুদানের সরকার জাতিসংঘের এই প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান করেছে। তবে অভিযোগ ‘ব্যাপক মাত্রার’ হওয়ায় এই বিষয়ে তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে প্রেসিডেন্ট সালভা কিরের মুখপাত্র ওয়েক আতেং। তিনি বলেছেন, সরকারের হয়ে লড়ছে এমন কোনো মিলিশিয়া বাহিনীর অস্তিত্ব নেই।

এদিকে মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল এক প্রতিবেদনে দেশটির সরকারি বাহিনীর বিরুদ্ধে ৬০ ব্যক্তিকে ‘শ্বাসরোধ’ করে হত্যার অভিযোগ করেছে। সূত্র : বিবিসি, এএফপি।

মন্তব্য