ট্রাম্পের জয়রথ চলছে হোঁচট খেলেন-334220 | দেশে দেশে | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

সোমবার । ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১১ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৩ জিলহজ ১৪৩৭


যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন

ট্রাম্পের জয়রথ চলছে হোঁচট খেলেন হিলারি

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১০ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান দলের মনোনয়নপ্রত্যাশী ডোনাল্ড ট্রাম্পের জয়যাত্রা চলছেই। গত মঙ্গলবার এই বিলিয়নেয়ার ব্যবসায়ী মিশিগান, মিসিসিপি ও হোওয়াই অঙ্গরাজ্যে জয় পেয়েছেন। তবে ডেমোক্রেটিক পার্টির তারকা প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন অপ্রত্যাশিতভাবে গুরুত্বপূর্ণ শিল্প রাজ্য মিশিগানে হোঁচট খেয়েছেন। যদিও মিসিসিপিতে জিতেছেন।

সার্বিকভাবে রিপাবলিকান দলে এক ট্রাম্প ছাড়া আর কোনো মনোনয়নপ্রত্যাশীর অবস্থাই এগোনোর মতো নয়। টেড ক্রুজ আইডাহোতে জয় পেয়েছেন। আর ফ্লোরিডার সিনেটর মার্কো রুবিও আরো পিছিয়ে পড়েছেন। আগামী ১৫ মার্চ তাঁর নিজ রাজ্য ফ্লোরিডায় প্রাইমারি অনুষ্ঠিত হবে। ওই রাজ্যে ডেলিগেট সংখ্যা ৯৯। ওই ভোটের পরই তিনি সিদ্ধান্ত নেবেন নির্বাচনী দৌড়ে থাকবেন কি না। যদিও জনমত জরিপে ফ্লোরিডায়ও এগিয়ে রয়েছেন ট্রাম্প। রাজনীতি বা ভোট করার কোনো অভিজ্ঞতা ট্রাম্পের নেই। তাঁর বেপরোয়া মুখ চালানোর অভ্যাস দলের মধ্যে শুরুতে অস্বস্তি পরে তীব্র বিরোধিতা তৈরি করলেও ভোটারদের মধ্যে তাঁর গ্রহণযোগ্যতা বেড়েই চলেছে। শুধু রাজ্য নয়, জাতীয়ভাবে করা জনমত জরিপেও তিনি এগিয়ে রয়েছেন।

ট্রাম্প দেখিয়ে দিচ্ছেন প্রথাগত রাজনীতির বাইরে গিয়েও জনপ্রিয়তা অর্জন সম্ভব। তাঁর বিরুদ্ধে দলের অভিযোগ তিনি যথার্থ রক্ষণশীল নন। এই অভিযোগের জবাব দিয়ে মঙ্গলবার জয়ের পর দেওয়া এক ভাষণে তিনি বলেন, ‘আমার চেয়ে বড় রক্ষণশীল দলে আর কেউ নেই।’ তিনি দাবি করেন, ‘আব্রাহাম লিংকন ছাড়া আর যে কারো চেয়ে ভালো প্রেসিডেন্ট হব আমি।’

ধারণা করা হয় শেষ পর্যন্ত দলের মনোনয়ন পেলে সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটনকে মোকাবিলা করতে হবে তাঁকে। এক ভাষণে হিলারি বলেন, ‘প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার অর্থ কাউকে অসম্মান করা নয়। তাঁকে ফলাফল দেখাতে হবে।’ তবে হিলারির সম্ভাবনা সর্বাধিক হলেও গত মঙ্গলবার ভারমন্টের সিনেটর বার্নি স্যান্ডার্সের কাছে মিশিগানে পরাজিত হয়েছেন তিনি।

তবে আলোচনা-সমালোচনার আলো এবারের প্রাক-নির্বাচনী প্রতিযোগিতায় ডেমোক্রেটিক দলের ওপর খুব একটা পড়ছে না। ট্রাম্পের অভাবনীয় তৎপরতা এবং দলে তাঁর বিরুদ্ধে অবস্থান গণমাধ্যমের সব আলো কেড়ে নিয়েছে। প্রতিষ্ঠানগতভাবে পুরো দলই তাঁর বিরুদ্ধে। কিন্তু তিনি এগিয়ে চলেছেন। গতবারের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী মিট রমনি বলেছেন, ‘ট্রাম্পের তর্জন-গর্জনই সার। তিনি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলে নিশ্চিতভাবেই দলের ভরাডুবি ঘটবে।’ সূত্র : বিবিসি।

মন্তব্য