kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ব্রাসেলস সম্মেলনে ইউরোপীয় নেতারা

বলকান রুট বন্ধে মতৈক্যের আভাস

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৮ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



ইউরোপের কাঙ্ক্ষিত দেশগুলোতে যাওয়ার ক্ষেত্রে শরণার্থীদের সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত ‘বলকান রুট’ বন্ধ করার প্রশ্নে ইউরোপীয় নেতাদের মধ্যে মতৈক্যের আভাস পাওয়া গেছে। গতকাল সোমবার বেলজিয়ামের ব্রাসেলসে অনুষ্ঠিত শীর্ষ সম্মেলনে এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর শরণার্থী নিয়ে সবচেয়ে বড় সংকটের মুখে পড়া ইউরোপকে টেনে তোলার লক্ষ্যে ব্রাসেলস সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। গুরুত্বপূর্ণ এ সম্মেলনে তুর্কি প্রধানমন্ত্রী আহমেত দভুতোগলুও অংশ নেন।

এদিকে এজিয়ান সাগরে মানবপাচারকারীদের দৌরাত্ম্য ঠেকাতে ন্যাটোর টহলদারি বহরে যোগ দেওয়ার জন্য তিনটি নৌযান পাঠিয়েছে যুক্তরাজ্য। এর মধ্যে রয়্যাল নেভির ‘আরএফএ মাউন্স বে’ নামের একটি যুদ্ধজাহাজ রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন গতকাল ব্রাসেলস সম্মেলনে যোগদানের উদ্দেশ্যে লন্ডন ছাড়ার আগে এ ঘোষণা দেন।

তুরস্ক ও গ্রিসের মধ্যে অবস্থিত এজিয়ান সাগর হয়েই মূলত শরণার্থীরা ইউরোপে যাচ্ছে। চলতি বছরের এ পর্যন্ত এজিয়ান সাগর পাড়ি দিয়ে গ্রিক উপকূলে পৌঁছেছে এক লাখ ২৫ হাজার শরণার্থী। গত বছরের একই সময়ের চেয়ে সংখ্যাটা ১২ গুণ বেশি। গত বছর সব মিলিয়ে ইউরোপে গেছে ১২ লাখ শরণার্থী। এদের বেশির ভাগই যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়াসহ ইরাক ও আফগানিস্তানের মানুষ। গতকালের গুরুত্বপূর্ণ সম্মেলনের আগে লম্বা কূটনৈতিক সফর করেন ইউরোপীয় কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড টাস্ক। এর অংশ হিসেবে শুক্রবার তুরস্ক যান তিনি। তখনই তিনি আশা প্রকাশ করেন, শরণার্থীরা ইউরোপে ঢুকতে যে পশ্চিম বলকান রুট ব্যবহার করছে, তা বন্ধ করার একটি চুক্তি হাতের নাগালে রয়েছে। সূত্র : এএফপি।


মন্তব্য