kalerkantho

বুধবার । ৭ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


তুরস্কের জনপ্রিয় পত্রিকার নিয়ন্ত্রণ নিল সরকার

পশ্চিমাদের উদ্বেগ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৬ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



তুরস্কের জনপ্রিয় পত্রিকার নিয়ন্ত্রণ নিল সরকার

পুলিশের কঠোর ভূমিকা সত্ত্বেও দৈনিক ‘জামান’-এর নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার প্রতিবাদে বিক্ষোভ অব্যাহত রেখেছে তুর্কিরা। ইস্তাম্বুলের গতকালের চিত্র। ছবি : এএফপি

তুরস্কের অন্যতম জনপ্রিয় দৈনিক ‘জামান’-এর নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে সরকার। গত শুক্রবার রাতে ইস্তাম্বুলে পত্রিকাটির প্রধান কার্যালয়ে অভিযান চালায় পুলিশ।

এ সময় পত্রিকাটির কর্মীরাসহ শত শত মানুষ প্রতিরোধ গড়ে তোলার চেষ্টা করলে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। পুলিশ বিক্ষোভকারীদের ওপর কাঁদানে গ্যাস ও জলকামান ছোড়ে। গতকাল শনিবারও সংঘর্ষ অব্যাহত ছিল।

পত্রিকাটি সরকারি কর্তৃপক্ষের নিয়ন্ত্রণে থাকবে—আদালতের এমন নির্দেশের কয়েক ঘণ্টা পর পুলিশ অভিযান চালায়। পত্রিকাটির প্রধান সম্পাদক বলেছেন, এ ঘটনা দেশ ও গণতন্ত্রের জন্যে একটি ‘অন্ধকার অধ্যায়’। এ ঘটনায় উদ্বেগ জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। ইউরোপীয় ইউনিয়নও বলেছে, এতে তারা ‘গভীরভাবে উদ্বিগ্ন’।

সরকারবিরোধী হিসেবে পরিচিত পত্রিকাটির সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ধর্মীয় নেতা ফেতহুল্লাহ গুলেনের হিজমেত আন্দোলনের যোগসূত্র রয়েছে। তুরস্ক হিজমেতকে ‘সন্ত্রাসী গোষ্ঠী’ হিসেবে চিহ্নিত করেছে। সরকারের দাবি, ‘হিজমেত প্রেসিডেন্ট রেসেপ তাইয়িপ এরদোয়ানের সরকার পতনের চক্রান্তে লিপ্ত। ’

ওই আন্দোলনের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে গত বছরও দুটি সংবাদপত্র ও দুটি টেলিভিশন চ্যানেল সরকারি নিয়ন্ত্রণে নেওয়া হয়েছে। আটক করা হয়েছে অনেক হিজমেত সমর্থককে।

পুলিশি অভিযান চালানোর আগে দেওয়া এক বিবৃতিতে জামান কর্তৃপক্ষ আদালতের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানায়। তারা বলে, ‘মুক্ত গণমাধ্যম বিবেচনায় তুরস্ক ইতিহাসের অন্ধকারতম ও হতাশাময় সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। ’

কী কারণে প্রচার সংখ্যার অন্যতম শীর্ষ পত্রিকাটিকে ‘নিয়ন্ত্রণে’ নেওয়ার আদেশ দেওয়া হলো, সে বিষয়ে আদালতের তরফে তাত্ক্ষণিক কোনো ব্যাখ্যা দেওয়া হয়নি।

যুক্তরাষ্ট এর প্রতিবাদ জানিয়ে বলেছে, এটা তুরস্কের সরকার, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও ত্রুটিপূর্ণ বিচারব্যবস্থার সাম্প্র্রতিক উদাহরণ। মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জন কিরবি বলেন, ‘তুর্কি সরকারকে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা বজায় রাখার আহ্বান জানাচ্ছি। ’

প্রসঙ্গত, একসময়ের ঘনিষ্ঠ মিত্র গুলেনের সঙ্গে এরদোয়ানের ‘সম্পর্কের অবনতি’র পর হেজমেতের ওপর দমন-পীড়ন শুরু হয়েছে।

‘রাষ্ট্রীয় গোপন তথ্য প্রকাশের’ অভিযোগে আটক দুই সাংবাদিক কান দুনদার ও এরদেন গুলকে সাংবিধানিক আদালত জামিন দেওয়ার পরের দিনই জামান কার্যালয়ে অভিযান চালানো হলো।

তুরস্ক সরকার জাহাজে করে ইসলামী জঙ্গিদের অস্ত্র পাঠাচ্ছে—এমন সংবাদ প্রকাশের দায়ে কামহুরিয়াত পত্রিকার ওই দুই সাংবাদিককে গত নভেম্বরে আটক করা হয়। আগামী ২৫ মার্চ তাঁদের বিচার শুরু হবে। সূত্র : স্পুতনিক নিউজ, এএফপি।


মন্তব্য