kalerkantho

শুক্রবার । ২ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


গোলাগুলিতে নয়, পুলিশি হেফাজতে মারা গেছেন ইশরাত

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৫ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



পুলিশের সঙ্গে গোলাগুলিতে নয়, পুলিশের হেফাজতেই ভারতের কলেজ শিক্ষার্থী ইশরাত জাহাতের মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি করেছেন সংশ্লিষ্ট তদন্ত কর্মকর্তা। জঙ্গি সংগঠন লস্কর-ই-তৈয়বার সঙ্গে ইশরাতের সংশ্লিষ্টতার কোনো তথ্য ওই সময় গোয়েন্দাদের কাছে ছিল না বলেও জানান ওই কর্মকর্তা।

আইপিএস কর্মকর্তা সতীশ ভার্মার বরাত দিয়ে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস গত বৃহস্পতিবার জানায়, ইশরাত হত্যাকাণ্ড পূর্বপরিকল্পিত। এর আগ পর্যন্ত বলা হয়, ভারতের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালে ২০০৪ সালের ১৫ জুন আহমেদাবাদের কাছে ‘পুলিশের সঙ্গে গোলাগুলিতে’ নিহত হন ১৯ বছর বয়সী কলেজ শিক্ষার্থী ইশরাত।

গুজরাট হাইকোর্টের নিযুক্ত তদন্ত কর্মকর্তা সতীশ বলেন, ‘আমাদের তদন্তে জানা গেছে, এনকাউন্টারের কয়েক দিন আগে ইশরাতকে আরো তিনজন পুরুষের সঙ্গে তুলে নিয়ে যায় আইবি (ইন্টেলিজেন্ট ব্যুরো)। প্রকৃতপক্ষে (লস্কর-ই-তৈয়বার সদস্য হিসেবে) অভিযুক্ত তিনজন পুরুষের সঙ্গে এক নারীও ছিল, এমন তথ্য আইবির কাছে ছিল না। ইশরাতের ব্যাপারে কোনো তথ্যই ছিল না। তাদের সবাইকে অবৈধভাবে আটক রাখা হয়েছিল এবং তারপর গুলি করে মারা হয়েছিল। ’

সতীশ মনে করেন, জাতীয়তাবাদ আর নিরাপত্তার ধুয়া তুলে দরিদ্র ও নিষ্পাপ একটি মেয়েকে কলঙ্কিত করা হচ্ছে। এ হত্যাকাণ্ডে যারা জড়িত, তারা নিজেদের জন্য অনুকূল পরিস্থিতি তৈরির স্বার্থে এ কাজ করছে বলে মন্তব্য করেন এই কর্মকর্তা।

সূত্র : ডন।


মন্তব্য