ভারতের লোকসভার সাবেক স্পিকার সাংমা-332236 | দেশে দেশে | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

রবিবার । ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১০ আশ্বিন ১৪২৩ । ২২ জিলহজ ১৪৩৭


ভারতের লোকসভার সাবেক স্পিকার সাংমা মারা গেছেন

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৫ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



ভারতের লোকসভার সাবেক স্পিকার সাংমা মারা গেছেন

ভারতের লোকসভার সাবেক স্পিকার ও মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী পূর্ণ অ্যাজটেক সাংমা (পি এ সাংমা) মারা গেছেন। গতকাল শুক্রবার হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে দিল্লির বাসভবনে মৃত্যু হয়েছে আটবারের নির্বাচিত এই সংসদ সদস্যের। তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৮ বছর।

১৯৪৭ সালের ১ সেপ্টেম্বর মেঘালয়ের পশ্চিম গারো হিল জেলার চাপাঠি গ্রামে সাংমার জন্ম। মেঘালয়ের সেন্ট অ্যান্থনিজ কলেজ থেকে স্নাতক সাংমা ১৯৭৩ সালে মেঘালয় যুব কংগ্রেসের সহসভাপতি হন।

১৯৭৭ সালে তুরা থেকে প্রথমবার লোকসভার সদস্য হন তিনি। সেই থেকে নবম লোকসভা বাদে তুরা নির্বাচনী এলাকা থেকে আটবার সংসদ সদস্য হন তিনি। ১৯৮৮ থেকে ১৯৯০ সালে পর্যন্ত সাংমা মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন। ১৯৯৬ থেকে ১৯৯৮ সাল পর্যন্ত লোকসভার স্পিকারের দায়িত্ব পালন করেন।

গান্ধী পরিবারের বিরোধিতা করায় ১৯৯৯ সালে শারদ পাওয়ার ও তারিক আনোয়ারের সঙ্গে সাংমাও কংগ্রেস থেকে বহিষ্কৃত হন। এরপর গড়ে তোলেন ন্যাশনালিস্ট কংগ্রেস পার্টি (এনসিপি)। ২০০৪ সালে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে হাত মিলিয়ে সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের সংসদ সদস্য হন সাংমা। অবশ্য সে সম্পর্ক এক বছরের বেশি স্থায়ী হয়নি। ফের এনসিপির সংসদ সদস্য হন তিনি।

২০১৩ সালে এনসিপি ছেড়ে ন্যাশনালিস্ট পিপলস পার্টি (এনপিপি) গড়ে তোলেন। গত বিধানসভা নির্বাচনে এনপিপি মাত্র দুটি আসন পেয়েছিল। ২০১২ সালে রাষ্ট্রপতি হওয়ার দৌড়েও নাম লিখিয়েছিলেন তিনি। সাংমার মেয়ে আগাথা সাংমা, কনরাড সাংমা ও জেমস সাংমা তিনজনই রাজনীতিতে আছেন। আগাথা দেশের সর্বকনিষ্ঠ প্রতিমন্ত্রী হন। কনরাড মেঘালয়ের বিরোধী দলনেতা। সূত্র : দ্য হিন্দু।

মন্তব্য