kalerkantho


প্রথম কিস্তি
৩৯তম বিশেষ বিসিএস পরীক্ষা

এবার নেওয়া হবে ৪৭৯২ ডাক্তার

২৫ এপ্রিল, ২০১৮ ০০:০০



এবার নেওয়া হবে ৪৭৯২ ডাক্তার

৩৯তম বিসিএস পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে পিএসসি। এবার স্পেশাল, নেওয়া হবে শুধু চিকিৎসক। সহকারী সার্জন পদে চার হাজার ৫৪২ ও সহকারী ডেন্টাল সার্জন পদে নিয়োগ পাবেন ২৫০ জন। পরীক্ষার প্রস্তুতি নিয়ে তিন কিস্তির ধারাবাহিকের প্রথম পর্বে সাধারণ বিষয়াবলি। লিখেছেন আরাফাত শাহরিয়ার

 

চিকিৎসকদের জন্য দারুণ সুখবর। তাঁদের জন্যই নেওয়া হবে ৩৯তম বিসিএস পরীক্ষা। সহকারী সার্জন পদে এমবিবিএস বা সমমানের ডিগ্রি থাকতে হবে। সহকারী ডেন্টাল সার্জন পদে থাকতে হবে বিডিএস অথবা সমমানের ডিগ্রি। তবে সাময়িকভাবে আবেদন করতে পারবেন পরীক্ষায় অবতীর্ণরাও। বিসিএস ক্যাডার হওয়ার স্বপ্ন যাঁদের, প্রস্তুতি শুরু করে দিন এখন থেকেই। স্পেশাল বিসিএসের সুবিধা হলো, সাধারণ বিসিএসের মতো অনেক নম্বরের পরীক্ষার বালাই নেই! শুধু দিতে হবে ২০০ নম্বরের লিখিত আর ১০০ নম্বরের ভাইভা। লিখিত পরীক্ষা হবে এমসিকিউ টাইপের। তাই ঝক্কি-ঝামেলাও কম।

 

আবেদন অনলাইনে

৩৯তম বিসিএস পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি পাওয়া যাবে বাংলাদেশ সরকারি কর্মকমিশনের (পিএসসি) ওয়েবসাইটে (www.bpsc.gov.bd) I bit.ly/2J0V4Wx লিংকে। আবেদন করা যাবে www.bpsc.gov.bd ও  ওয়েবসাইটের মাধ্যমে। শুরু হয়ে গেছে আবেদনপ্রক্রিয়া, শেষ সময় ৩০ এপ্রিল সন্ধ্যা ৬টা। আবেদনপত্র পূরণের নির্দেশাবলি পাওয়া যাবে ওয়েবসাইটে। পিএসসি সূত্রে জানা গেছে, পরীক্ষা হতে পারে জুলাইয়ে। সময়সূচি প্রকাশ করা হবে কমিশনের ওয়েবসাইট ও সংবাদমাধ্যমে। লিখিত পরীক্ষা হবে শুধু ঢাকা কেন্দ্রে।

 

১০০ নম্বরের সাধারণ বিষয়াবলি

সাধারণ বিষয়াবলিতে বরাদ্দ ১০০ নম্বর। নম্বরবণ্টন বাংলা ২০, ইংরেজি ২০, বাংলাদেশ বিষয়াবলি ২০, আন্তর্জাতিক বিষয়াবলি ২০, গাণিতিক যুক্তি ১০ ও মানসিক দক্ষতা ১০। মোট ১০০টি এমসিকিউ প্রশ্ন থাকবে। প্রতিটি শুদ্ধ উত্তরের জন্য ১ নম্বর পাবেন। আছে নেগেটিভ মার্কিং। প্রতিটি ভুল উত্তরে কাটা যাবে ০.৫০ নম্বর।

 

বাংলা

বাংলা ভাষা ও সাহিত্য থেকে থাকবে ২০ নম্বর। ভাষা অংশে থাকবে ১৫ ও সাহিত্যে ৫ নম্বর। ভাষা অংশে প্রশ্ন করা হবে প্রয়োগ-অপপ্রয়োগ, বানান ও বাক্য শুদ্ধি, পরিভাষা, সমার্থক ও বিপরীতার্থক শব্দ, ধ্বনি, বর্ণ, শব্দ, পদ, বাক্য, প্রত্যয়, সন্ধি ও সমাস থেকে। সাহিত্য অংশে প্রশ্ন হবে প্রাচীন,  মধ্যযুগ ও আধুনিক যুগ (১৮০০ সাল থেকে বর্তমান পর্যন্ত) থেকে। ৩৩তম বিসিএসে স্বাস্থ্য ক্যাডারে প্রথম স্থান অধিকারী ডা. মো. রায়হান আলী মোল্লা বলেন, ‘২০ নম্বরের মধ্যে ১৫ নম্বরই বরাদ্দ ব্যাকরণে। তাই এতে বেশি সময় দিতে হবে। সন্ধিবিচ্ছেদ, সমাসসহ কিছু টপিক থেকে প্রায় প্রতিবছরই প্রশ্ন আসে। নবম-দশম শ্রেণির ব্যাকরণ বই থেকে টপিক ধরে পড়লেই চলে। সাহিত্য অংশে রবীন্দ্রনাথ, নজরুল থেকে প্রশ্ন আসার সম্ভাবনা বেশি। দেখতে হবে বিগত বছরের প্রশ্ন।’

 

ইংরেজি

পিএসসি সূত্রে জানা গেছে, ইংরেজিতে ল্যাঙ্গুয়েজ অংশে থাকবে ১৫ নম্বর ও লিটারেচারে ৫ নম্বর। ল্যাঙ্গুয়েজ পার্টে Parts of Speech থেকে Noun, Pronoun, Verb, Adjective, Adverb, Preposition, Conjunction থেকে প্রশ্ন থাকবে। Idioms & Phrases অংশে Meanings of Phrases, Kinds of Phrases, Identifying Phrases থেকে প্রশ্ন থাকবে। Clauses অংশে এর বিভিন্ন প্রকারভেদ ও ধরন থেকে পড়তে হবে। Tense, Verb, Preposition, Determiner, Gender, Number I Subject-Verb Agreement থেকে প্রশ্ন থাকবে Corrections অংশে। Sentences, Voice & Transformations থেকেও প্রশ্ন থাকতে পারে। প্রস্তুতি থাকা চাই Word Meaning, Synonyms, Antonyms, Spelling, Parts of speech, Prefixes and suffixes বিষয়েও। Paragraph, Letter, Application বিষয়ে ধারণা নিতে হবে Composition অংশে।

ইংলিশ লিটারেচার অংশে এলিজাবেথান পিরিয়ড থেকে একবিংশ শতাব্দী পর্যন্ত কবি-সাহিত্যিকদের রচনা থেকে প্রশ্ন আসবে। বিভিন্ন খ্যাতিমান কবি-লেখক-নাট্যকারের রচনা, নাটক, কবিতার কোটেশন থেকে প্রশ্ন আসতে পারে। বাংলার মতো ইংরেজিতেও গ্রামারে বেশি জোর দিতে হবে।

 

বাংলাদেশ বিষয়াবলি

পিএসসি সূত্রে জানা গেছে, জাতীয় বিষয়াবলি থেকে থাকবে ৪টি প্রশ্ন। প্রশ্ন আসতে পারে প্রাচীনকাল থেকে বর্তমান ইতিহাস, কৃষ্টি ও সংস্কৃতি, মুক্তিযুদ্ধ ও বাংলাদেশের অভ্যুদয়, ভাষা আন্দোলন, ১৯৫৪ সালের নির্বাচন, ছয় দফা, গণ-অভ্যুত্থান ও ১৯৭০ সালের সাধারণ নির্বাচন থেকে। বাংলাদেশ কৃষিজ সম্পদ; জনসংখ্যা, আদমশুমারি, জাতি-গোষ্ঠী ও উপজাতি; অর্থনীতি; শিল্প ও বাণিজ্য থেকে ২টি করে মোট ৮টি প্রশ্ন থাকতে পারে। সংবিধান থেকে দুটি প্রশ্ন আসতে পারে। রাজনৈতিক ব্যবস্থা এবং সরকারব্যবস্থা থেকে থাকতে পারে চারটি প্রশ্ন। বাকি ২টি প্রশ্ন আসতে পারে জাতীয় অর্জন, বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব, গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান ও স্থাপনা, পুরস্কার, খেলাধুলা, চলচ্চিত্র ও গণমাধ্যম থেকে। ৩৩তম বিসিএসে স্বাস্থ্য ক্যাডারে তৃতীয় স্থান অধিকারী ডা. ফিরোজ আহমেদ আল-আমিন জানান, বিগত ছয় মাসের সাম্প্রতিক বাংলাদেশ থেকে বেশি প্রশ্ন আসে। নিয়মিত পত্রিকা পড়ার অভ্যাস কাজে দেবে। কারেন্ট অ্যাফেয়ার্সবিষয়ক সাময়িকী ও পরীক্ষার আগে প্রকাশিত এর বিসিএস স্পেশাল সংখ্যা কাজে দেবে।

 

আন্তর্জাতিক বিষয়াবলি

চারটি প্রশ্ন থাকবে বৈশ্বিক ইতিহাস, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক ব্যবস্থা, ভূ-রাজনীতি থেকে। আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা ও আন্তরাষ্ট্রীয় ক্ষমতা সম্পর্ক বিষয়ে থাকবে চারটি প্রশ্ন। সাম্প্রতিক ঘটনাপ্রবাহ থেকে থাকবে আরো চারটি প্রশ্ন। পরিবেশগত ইস্যু ও কূটনীতিও দেখতে হবে। এতেও বরাদ্দ ৪ নম্বর। বাকি ৪ নম্বরের প্রশ্ন করা হবে আন্তর্জাতিক সংগঠন ও অর্থনৈতিক প্রতিষ্ঠান থেকে। আন্তর্জাতিক বিষয়াবলির জন্য একই ধরনের পরামর্শ দিলেন ডা. মো. রায়হান আলী মোল্লা। তিনি জানান, বিগত ছয় মাসের পত্রপত্রিকার আন্তর্জাতিক পাতা ও কারেন্ট অ্যাফেয়ার্সবিষয়ক সাময়িকী পড়লে প্রস্তুতি অনেকটাই হয়ে যায়। সাম্প্রতিকে জোর দিতে হবে। যেমন—সিরিয়া ইস্যু ও রোহিঙ্গা সমস্যা থেকে প্রশ্ন আসতে পারে।

 

গাণিতিক যুক্তি

বাস্তব সংখ্যা, লসাগু, গসাগু, শতকরা, সরল ও যৌগিক মুনাফা, অনুপাত ও সমানুপাত, লাভ ও ক্ষতি থেকে থাকবে দুটি প্রশ্ন। দুটি প্রশ্ন থাকবে বীজগাণিতিক সূত্রাবলি, বহুপদী উৎপাদক, সরল ও দ্বিপদী সমীকরণ, সরল ও দ্বিপদী অসমতা, সরল সহসমীকরণ থেকে। সূচক ও লগারিদম, সমান্তর ও গুণোত্তর অনুক্রম ও ধারায় বরাদ্দ ২। রেখা, কোণ, ত্রিভুজ ও চতুর্ভুজসংক্রান্ত উপপাদ্য, পিথাগোরাসের উপপাদ্য, বৃত্তসংক্রান্ত উপপাদ্য, পরিমিতি-সরলক্ষেত্র ও ঘনবস্তু থেকে ২ এবং বাকি ২ নম্বরের প্রশ্ন করা হবে সেট, বিন্যাস ও সমাবেশ, পরিসংখ্যান ও সম্ভাব্যতা থেকে।

ডা. ফিরোজ আহমেদ আল-আমিন মনে করেন, অন্যদের থেকে পার্থক্য গড়ে দিতে পারে গণিত। ১০ নম্বরের গাণিতিক যুক্তি অংশে কোনো ভুল করা যাবে না। তিনি বলেন, ‘কোনো কোচিং করিনি, মডেল টেস্টও দিইনি। বন্ধুদের গণিতের অঙ্ক ধরতে বলতাম। তারা প্রশ্ন করলে ১০ সেকেন্ডে সেটির সমাধান করার চেষ্টা করতাম। এই চর্চাটা অনেক কাজে দিয়েছে।’

 

মানসিক দক্ষতা

মানসিক দক্ষতা বা মেন্টাল অ্যাবিলিটি বিষয়ে ১০ নম্বরের প্রশ্ন করা হবে ছয়টি বিষয় থেকে। এগুলো হলো ভাষাগত যৌক্তিক বিচার (Verbal Reasoning), সমস্যা সমাধান (Problem Solving), বানান ও ভাষা (Spelling and Language), যান্ত্রিক দক্ষতা (Mechanical Reasoning), স্থানাঙ্ক সম্পর্ক (Space Relation) ও সংখ্যাগত ক্ষমতা (Numerical Ability) থেকে। ডা. মো. রায়হান আলী মোল্লা জানান, বিভিন্ন বই থেকে এ বিষয়ের প্রস্তুতি নিলেই চলে। ইন্টারনেটেও এসব বিষয়ে চর্চা করা যায়, যা প্রস্তুতিতে সহায়ক হয়।



মন্তব্য