kalerkantho


তিন বছর পর জমির দখল পেলেন বীরাঙ্গনা

রাজবাড়ী প্রতিনিধি   

৮ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



বরাদ্দের তিন বছর পর গত বুধবার বিকেলে জমির দখল পেয়েছেন রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার সোনাপুর গ্রামের বীরাঙ্গনা নুরজাহান বেগম। ২০১৪ সালে সরকার তাঁর নামে বরাদ্দ দিলেও এত দিন অন্যরা ওই জমি ভোগদখল করেছিল।

তাঁকে নিয়ে ২০১৩ সালের ডিসেম্বরে কালের কণ্ঠ প্রথম পাতায় ‘বীরাঙ্গনার বিপর্যয়গাথা, নুরজাহান বেগম/ মুক্তিযোদ্ধারা বাড়ি আনার পর শুরু হয় আরেক যুদ্ধ’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এর পর বালিয়াকান্দি উপজেলা প্রশাসন ১০ শতাংশ খাসজমি তাঁকে বন্দোবস্ত দেয়। ২০১৫ সালের ১০ জানুয়ারি কালের কণ্ঠ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে ‘বীরাঙ্গনা মুক্তিযোদ্ধা সম্মাননা’ স্বরূপ এক লাখ টাকা দেওয়া হয়। সরকারি জমির কাগজপত্র পেলেও তিনি এত দিন দখল পাননি।

সম্প্রতি বিষয়টি বালিয়াকান্দির ইউএনও মো. মাসুম রেজার নজরে আসে। তাঁর হস্তক্ষেপে নবাবপুর ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মো. আতাউর রহমান জমিতে সাইন বোর্ড ও লাল নিশান টাঙিয়ে দখল বুঝে দেন।

নুরজাহান বেগম বলেন, ‘উপজেলা প্রশাসন আমার সব কাগজপত্র মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়ে দিয়েছে। ’

ইউএনও মো. মাসুম রেজা বলেন, ‘তিনি অল্প সময়ের মধ্যে রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি পাবেন। ’


মন্তব্য