kalerkantho


রূপচর্চা

চুলের জন্য গোলাপজল

প্রাকৃতিক পানীয় গোলাপজল চুলের জন্য বেশ উপকারী। ড্যামেজ চুল সারানো থেকে শুরু করে চুল পড়া বন্ধ ও নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে গোলাপজল। জানতে হবে ব্যবহারের সঠিক পদ্ধতি। নাঈম সিনহাকে তা জানালেন শোভন মেকওভারের রূপবিশেষজ্ঞ শোভন সাহা

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



চুলের জন্য গোলাপজল

রুক্ষ চুলে

গোলাপজল ও গ্লিসারিন সমপরিমাণ মিশিয়ে স্প্রে বোতলে ভরে ফ্রিজে রাখুন। গোসলের আগে এই মিশ্রণ চুলের গোড়া থেকে আগা পর্যন্ত স্প্রে করুন। তারপর ভালো করে চুল আঁচড়ে নিন। ৩০ মিনিট পর শ্যাম্পু করুন। সপ্তাহে দুই দিন চুলে ব্যবহার করুন। এতে চুল হয়ে উঠবে নরম ও সিল্কি।

 

চুল পড়া কমাতে

রাতে ঘুমানোর আগে চুলে হট অয়েল ম্যাসাজ করে রাখুন। পরদিন সকালে আধা কাপ নারকেল দুধের সঙ্গে একটা ডিম ও ২ টেবিল চামচ গোলাপজল মিশিয়ে ব্লেন্ড করে নিন। তুলার বলের সাহায্যে এই প্যাক স্কাল্প থেকে চুলের আগা পর্যন্ত লাগান। শাওয়ার ক্যাপ পরে এক ঘণ্টা অপেক্ষা করে চুল ধুয়ে  ফেলুন। তারপর শ্যাম্পু করুন। সপ্তাহে এক দিন এই প্যাক ব্যবহারে চুল পড়া অনেকটাই কমে আসবে।

 

হেয়ার কন্ডিশনার

ভেতর থেকে পুষ্টি জুগিয়ে চুলের ঔজ্জ্বল্য বাড়াতে মধু ও গোলাপজলের জুড়ি নেই। এটির ব্যবহারে চুল হবে প্রাণবন্ত। দুই ভাগ গোলাপজলের সঙ্গে এক ভাগ মধু ও এক ভাগ লেবুর রস মিশিয়ে নিন। ৪০ মিনিট এই মিশ্রণটি মাথা ও চুলে মেখে রাখুন। তারপর স্বাভাবিক পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। শ্যাম্পু করার কোনো প্রয়োজন নেই। মাসে দুইবার এই মিশ্রণ ব্যবহার করুন।

 

চুলের বৃদ্ধি বাড়াতে

এক কাপ ফুটন্ত পানিতে সারা রাত গ্রিন টি-ব্যাগ ভিজিয়ে রাখুন। সকালে গ্রিন টির সঙ্গে ২ টেবিল চামচ গোলাপজল মিশিয়ে নিন। শ্যাম্পু করার পর চুল ধুয়ে মিশ্রণটি চুলে ঢেলে দিন। এতে চুলের গোড়া মজবুত হবে। চুল তাড়াতাড়ি বড় হবে।

 

খুশকি কমাতে

দুই টেবিল চামচ পেঁয়াজের রসের সঙ্গে ১ টেবিল চামচ গোলাপজল ও ২ টেবিল চামচ লেবুর রস মিশিয়ে চুলের গোড়ায় ম্যাসাজ করুন। এক ঘণ্টা পর মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। এটি সপ্তাহে নিয়মিত একবার ব্যবহার করুন। এতে মাথার খুশকি কমে যাবে।

 

 

 



মন্তব্য