kalerkantho


রেসিপি

চিজকেকের চমৎকার

চিজকেক পশ্চিমা জগতের একটা জনপ্রিয় ডেজার্ট। বাঙালিও আজকাল চিজকেকের ভক্ত হয়ে গিয়েছে। চিজকেক দিয়ে তৈরি ডেজার্টের ঝটপট রেসিপি দিয়েছেন উম্মাহ মোস্তফা

৫ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



চিজকেকের চমৎকার

লেমন পিচ চিজকেক

উপকরণ

হেভি হুইপ ক্রিম দেড় কাপ, ঝরানো টক দই ১ কাপ, লেমন এসেন্স ১ চা চামচ, সবুজ রং ৩-৪ ফোঁটা, কনডেন্স মিল্ক আধা কাপ, পিচ কুচি আধা কাপ, স্বাদবিহীন জেলো পাউডার ১ টেবিল চামচ, পানি ৩ টেবিল চামচ।

যেভাবে তৈরি করবেন

১.         পানি আর জেলো পাউডার মিশিয়ে জ্বাল দিন।

২.         আঠালো হয়ে গেলে সেটা নামিয়ে একটা বাটিতে নিন।

৩.         মিশ্রণে ফল বাদে বাকি সব উপাদান মিলিয়ে বিট করুন।

৪.         মাখনের মতো হলে পরিবেশন জারে রেখে এই মিশ্রণ ঢালুন।

৫.         তারপর পিচ ফল কুচি দিন।

৬.         আবার চিজের মিশ্রণ দিয়ে লেমন আর চেরি দিয়ে সাজিয়ে নিয়ে ঠাণ্ডা করে পরিবেশন করুন।

 

ঘরেই বানান চিজকেক

চিজকেকের মূল উপাদান ক্রিমচিজ। অনেকেরই ধারণা, চিজকেক বানানো অনেক খরচের ব্যাপার। আপনি চাইলে বাসায় সহজেই ক্রিমচিজ বানিয়ে এই চিজকেকের স্বাদ নিতে পারেন। তিনভাবে আমরা সহজেই চিজকেক বাসায় বানাতে পারি।

১।         টক দইয়ের পানি ঝরিয়ে একেবারে পানিশূন্য করলে আমরা যে মাখনের মতো একটা ক্রিমি টেক্সচার পাব, সেটা কিন্তু ক্রিমচিজ।

২।         ছানা বানিয়ে সেটাকে ভালো করে মেখে দানা ছাড়িয়ে নিলেও কিন্তু সেটা ক্রিমচিজ হিসেবে কাজ করে। ছানা তৈরি করতে এক লিটার দুধে এক কাপের এক-তৃতীয়াংশ সিরকা এবং দুই কাপ পানি নিতে হবে। প্রথমে সিরকার সঙ্গে পানি মিশিয়ে রাখতে হবে। দুধ জ্বাল দিতে হবে। ফুটে উঠলে চুলা থেকে নামিয়ে রাখতে হবে। কিছুক্ষণ পর সিরকা-পানির মিশ্রণ অল্প অল্প করে দুধে মেশাতে হবে। মেশানোর পর মাঝে মাঝে নাড়তে থাকুন। দুধ থেকে সবুজ পানি পুরোপুরি আলাদা হয়ে গেলে ছানার পানি ঝাঁঝরিতে ছেঁকে নিন। ঝাঁঝরিতে রেখেই কলের পানিতে ভাল মত ধুয়ে নিতে হবে। এতে সিরকার টক ভাব চলে যাবে। এরপর পরিষ্কার সুতির কাপড়ে বেঁধে ঝুলিয়ে রাখুন আধা ঘন্টা। তারপর কাপড়ের গিঁট খুলে থালায় ছড়িয়ে নিয়ে ফ্যানের বাতাসে রেখে দিন খানিকক্ষণ।

৩।         আর ১ কাপ ছানার সঙ্গে আধা কাপ ঝরানো টক দই ও ২ টেবিল চামচ ফ্রেশক্রিম দিয়ে ভালো করে বিট করলেই একেবারে দোকানের মতো ক্রিমচিজ পাবেন। তবে ঘরে বানানো ক্রিমচিজ তিন দিনের বেশি সংরক্ষণ করা যাবে না। এখন আপনার সুবিধা আর সাধ্য অনুযায়ী সহজেই বানিয়ে ফেলতে পারেন ক্রিমচিজ একেবারে দোকানের মতো স্বাদে, তা-ও আবার বাসায়।

 

টিরামিশু চিজকেক

উপকরণ

হেভি হুইপ ক্রিম দেড় কাপ, ছানা আধা কাপ, কনডেন্স মিল্ক সিকি কাপ, কফি ১ চা চামচ, চকোলেট সস সিকি কাপ।

যেভাবে তৈরি করবেন

১.         সব একসঙ্গে মিশিয়ে ভালো করে বিট করুন, যতক্ষণ না পুরো মিশ্রণ একেবারে মাখনের মতো থকথকে না হয়।

২.         হয়ে গেলে পরিবেশন জারে দিয়ে ওপরে চকোলেট সস ও কুকিজ দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

 

ভ্যানিলা দই 

উপকরণ

হেভি হুইপ ক্রিম দেড় কাপ, ঝরানো টক দই ১ কাপ, ভ্যানিলা ১ চা চামচ,

কনডেন্স মিল্ক আধা কাপ, পিচ ও চেরি সাজানোর জন্য, স্বাদবিহীন জেলো পাউডার ১ টেবিল চামচ, পানি ৩ টেবিল চামচ।

যেভাবে তৈরি করবেন

১.         পানি আর জেলো পাউডার মিশিয়ে জ্বাল দিন। আঠালো হয়ে গেলে সেটা নামিয়ে একটা বাটিতে নিন।

২.         বাটিতে ফল বাদে বাকি উপাদান ভালো করে বিট করতে হবে। মাখনের মতো হলে পরিবেশন জারে রেখে ফল দিয়ে সাজিয়ে ঠাণ্ডা করে পরিবেশন করুন।

নবাবি সেমাই

পকরণ

সেমাই ১০০ গ্রাম, দুধ ১ লিটার (ঘন), ছানা ১ কাপ, চিনি আধা কাপের একটু বেশি, এলাচি গুঁড়া ১ চিমটি, ঘি ১ টেবিল চামচ, বাদাম কুচি ও চেরি সাজানোর জন্য।

যেভাবে তৈরি করবেন

১.         সেমাই ঘিয়ে ভাজুন। 

২.   দুধ গরম করে তাতে ছানা ও এলাচি দিন।

৩.         ছানা সুন্দর করে মিশে গেলে এতে ঘিয়ে ভেজে রাখা সেমাই দিন।

৪.         সেমাই সিদ্ধ হলে চিনি দিয়ে অপেক্ষা করুন। মাখা মাখা হলে চুলা থেকে নামিয়ে বাদাম ও চেরি দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন নবাবি সেমাই চিজকেক।

 

গুড়ের পায়েস 

উপকরণ

আধা ভাঙা চাল আধা কাপ, দুধ ১ লিটার (ঘন), গুড় ২০০ গ্রাম, পানি ২০০ মিলি লিটার, এলাচি ১টি, ছানা ২০০ গ্রাম (ছানা ক্রিমচিজ হিসেবে কাজ করছে), বাদাম কুচি সাজানোর জন্য।

যেভাবে তৈরি করবেন

১.         একটি হাঁড়িতে গুড় আর পানি দিয়ে জ্বাল দিন। একসঙ্গে মিশে ঘন হয়ে এলে চাল আর দুধ এই মিশ্রণে দিয়ে দিন।

২.         আরেকটি হাঁড়িতে দুধ নিয়ে এলাচি দিয়ে জ্বাল দিন। এখন এতে চাল দিয়ে সিদ্ধ হতে দিন।

৩.         চাল ফুটে গেলে তাতে ছানা আর গুড়ের মিশ্রণ দিয়ে ঘন করার জন্য অপেক্ষা করুন। হয়ে গেলে নামিয়ে ওপরে আরো ঘন গুড় ও বাদামের গুঁড়া দিয়ে পরিবেশন করুন।


মন্তব্য