kalerkantho


চট্টগ্রামে সবার ওপরে ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টার

আসিফ সিদ্দিকী   

১১ নভেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



চট্টগ্রামে সবার ওপরে ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টার

বাণিজ্য নগরী চট্টগ্রামে বেশ কয়েকটি উঁচু ভবন থাকলেও ২৪ তলা উঁচু ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টার চট্টগ্রামকে ছাড়াতে পারেনি কোনোটি। নিউ ইয়র্কভিত্তিক ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টার বিশ্বের ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রাণকেন্দ্র।

এক ছাদের নিচে ব্যবসার দ্রুততম সেবা দিতে বর্তমানে বিশ্বের ৯১টি দেশে ৩৩০টি ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টার একটি নেটওয়ার্কে যুক্ত। পাশের দেশ ভারতে ১৪টি ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টার রয়েছে, পাকিস্তানেও রয়েছে তিনটি। বাংলাদেশ ২০১৬ সালের জানুয়ারিতে প্রথম সেই নেটওয়ার্কে যুক্ত হয়।

চট্টগ্রামের আগ্রাবাদ বাণিজ্যিক এলাকায় নির্মিত ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টার দিয়েই এখন বাংলাদেশ বিশ্বে নতুন পরিচিতি পেয়েছে।

কোনো ধরনের ব্যাংকঋণ ছাড়াই চট্টগ্রাম চেম্বারের নিজস্ব অর্থে ২০০ কোটি টাকা ব্যয়ে এই ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টার নির্মিত হয়েছে। আর নির্মাণকাজে জড়িত ছিল কনকর্ড ইঞ্জিনিয়ারিং।

ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টার বাস্তবায়নে সরাসরি জড়িত চট্টগ্রাম চেম্বারের সাবেক সভাপতি এম এ লতিফ এমপি কালের কণ্ঠ’কে বলেন, ‘বাংলাদেশকে বিশ্ববাণিজ্যের নেটওয়ার্কে যুক্ত করতে উদ্যোগ নিলেও চট্টগ্রাম চেম্বারের জন্য এত বড় প্রকল্প বাস্তবায়ন খুব চ্যালেঞ্জিং ছিল। চেম্বারের নিজস্ব তহবিল থেকে ধাপে ধাপে অর্থ বরাদ্দ দিয়ে সেটি বাস্তবায়ন করে সক্ষমতা প্রমাণ করেছি। ’

২৪ তলা এই ভবনের প্রধান বৈশিষ্ট্য হচ্ছে চতুর্থ ফ্লোরে থাকা ‘শোকেস কর্নার’।

ফ্লোরে পণ্যের পসরা সাজানোর জন্য প্রাথমিকভাবে ১৪০টি শোকেস কর্নার রাখা হয়েছে, যেখানে বসুন্ধরা গ্রুপসহ দেশের শীর্ষ শিল্প গ্রুপ উৎপাদিত পণ্যের পসরা সাজিয়ে রেখেছে। এখানে বসেই বিদেশি ক্রেতারা পণ্য দেখে পছন্দ করে বুকিং দেবে আর সেগুলো বিদেশে তার গন্তব্যে পৌঁছে যাবে নিমেষে।

ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের ১০ থেকে ২০ তলা পর্যন্ত থাকবে পাঁচতারা হোটেল আর ২১ তলায় থাকবে হেলিপ্যাড সুবিধা। পাঁচতারা হোটেল হিসেবে বিশ্ববিখ্যাত চেইন হোটেল গ্র্যান্ড হায়াতের সঙ্গে চুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে চেম্বার কর্তৃপক্ষ। ফলে একজন বিদেশি ক্রেতা প্রয়োজন হলে পাঁচতারা হোটেলে রাত যাপন করে তাঁর ব্যবসায়িক কাজও সারতে পারবেন। চাইলে হেলিকপ্টারে করে সরাসরি ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের হেলিপ্যাডে আসতে পারবেন।

নিচে রয়েছে একসঙ্গে ৪০০ গাড়ি ধারণক্ষমতার তিনটি বেইসমেন্ট কার পার্কিং।

এ ছাড়া নিচতলায় রয়েছে ২৪ হাজার বর্গফুটের বঙ্গবন্ধু কনফারেন্স হল। তিনটি বেইসমেন্ট ও ২১ তলা ভবনের নিচতলায় দেশের শীর্ষ বাণিজ্যিক ব্যাংক রয়েছে।


মন্তব্য