kalerkantho


সোয়া ছয় লাখ স্মার্টকার্ড এসেছে, ১ মার্চ থেকে বিতরণ

রাশেদুল তুষার   

২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



আগামী ১ মার্চ থেকে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন এলাকায় জাতীয় পরিচয়পত্রের স্মার্টকার্ড বিতরণ শুরু হবে। কোতোয়ালী থানাধীন ১৫ নম্বর ওয়ার্ড এবং ডবলমুরিং থানার ১৩ নম্বর ওয়ার্ড দিয়েই এই কার্যক্রম শুরু হবে।

চট্টগ্রাম আঞ্চলিক নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, গত ১০ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন এলাকার তিনটি থানার জন্য প্রথম ধাপে সোয়া ছয় লাখ স্মার্টকার্ডের ২ হাজার ৫৭৪টি কার্টন চট্টগ্রামে এসে পৌঁছেছে। এর মধ্যে ডবলমুরিং থানায় ৪০৬টি কার্টনে ৯৬ হাজার ৫৬২, কোতোয়ালী থানার ৯৩৫ কার্টনে ২ লাখ ৩২ হাজার এবং পাঁচলাইশ থানার জন্য ১ হাজার ২৩৩ কার্টনে প্রায় তিন লাখ স্মার্টকার্ড পাঠানো হয়েছে। পর্যায়ক্রমে চট্টগ্রামের অন্যান্য এলাকায় স্মার্টকার্ড পাঠানো হবে। প্রথম ধাপে ২০০৭ সাল থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত তালিকাভুক্ত সব ভোটারের মেশিন রিডেবল স্মার্ট কার্ড পাঠানো হয়েছে। এছাড়া ২০১৫ সালে হালনাগাদ করা ভোটারদের একটি অংশের স্মার্টকার্ডও প্রথম ধাপে পাঠানো হয়েছে। বাকী ভোটারদের স্মার্টকার্ড ছাপানোর কাজ চলছে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, আপাতত ২০১৫ সাল পর্যন্ত যাঁরা ভোটার হয়েছেন, তাঁদেরকে স্মার্টকার্ড দেওয়া হবে। ২০১৫ সালের সর্বশেষ হালনাগাদ করা ভোটার তালিকায় চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন এলাকায় ১৮ লাখ ৬২ হাজার ভোটার তালিকাভুক্ত হয়েছেন। যাঁরা ইতিমধ্যে পুরনো জাতীয় পরিচয়পত্র পেয়েছেন তাঁরাও এই স্মার্টকার্ড পাবেন।

এ প্রসঙ্গে চট্টগ্রাম জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মনির হোসাইন খান কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘প্রতিটি ওয়ার্ডে আলাদা দল করে দেওয়া হবে। প্রতিটি দল জাতীয় ছুটি ছাড়া প্রতিদিন সর্বোচ্চ ৭৫০টি কার্ড বিতরণ করবে। অর্থাৎ সাপ্তাহিক ছুটির দিন শুক্র ও শনিবারেও কার্ড বিতরণ কার্যক্রম চলবে। কোন ভোটার কোনদিন কোন জায়গায় স্মার্টকার্ড পাবেন তা মোবাইল এসএমএসের মাধ্যমে জানতে পারবেন। এছাড়া পত্রিকা মারফতও তাঁদের জানানো হবে। ’

জানা গেছে, বিতরণে জটিলতা এড়াতে আগামী সপ্তাহ হতে মোবাইলের মেসেজ অপশনে গিয়ে ঝঈ লিখে একটা স্পেস দিয়ে যাঁরা ইতোমধ্যে এনআইডি কার্ড পেয়েছেন তাঁরা এনআইডি নম্বর এবং নতুন ভোটাররা ফরম নম্বর লিখে ১০৫ নম্বরে এসএমএস পাঠালে স্মার্টকার্ড প্রাপ্তির দিন কোথায় কার্ড দেওয়া হবে তা ফিরতি মেসেজে জানিয়ে দেওয়া হবে।

কোতোয়ালী থানা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ রেজাউল করিম জানান, শুরুতে কোতোয়ালী থানায় দুটি এবং ডবলমুরিং থানায় তিনটি দল কার্ড বিতরণের কাজ করবে। এই পাঁচ দলের মাধ্যমে প্রতিদিন ৩ হাজার ৭৫০টি কার্ড বিতরণ করা সম্ভব হবে।

উল্লেখ্য, এ স্মার্টকার্ডে তিন স্তরে ২৫টির অধিক নিরাপত্তা বৈশিষ্ট্য রয়েছে। কার্ডটি বর্তমান জাতীয় পরিচয়পত্রের চেয়ে অনেক বেশি দীর্ঘস্থায়ী ও টেকসই। এটি সহজে নকল করা যাবে না। চিপ, দুটি বারকোড ও মেশিন রিডেবল জোন (এমআরজেড) এই তিনটি স্তর থাকবে। কার্ডটি হবে একেবারেই নির্ভুল। পাসপোর্ট, ব্যাংক হিসাব খোলা, ড্রাইভিং লাইসেন্স, ট্রেড লাইসেন্স, টিন সার্টিফিকেট, জায়গা জমি ক্রয়-বিক্রয়, ছেলে মেয়েদের স্কুলে ভর্তিসহ ২১টি সেবা পাওয়া যাবে এই স্মার্টকার্ডের মাধ্যমে।


মন্তব্য