kalerkantho

খামারে মুরগির মড়ক

রাউজান প্রতিনিধি   

১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়নের গর্জনীয়া ও কারিগরবাড়ি এলাকার কয়েকটি খামারে অজ্ঞাত রোগে গত চার দিনে প্রায় ১৭০০ মুরগি মারা গেছে। এসব মুরগির একেকটির ওজন ৯০০ গ্রাম থেকে ১২৫০ গ্রাম।

গর্জনীয়া সাথী পোল্ট্রি ফার্মের মালিক সৈয়দ মুহাম্মদ শাহজাহান কালের কণ্ঠকে জানান, গত চার দিনে তাঁর খামারের প্রায় ৭০০ মুরগি মারা গেছে। এছাড়া পার্শ্ববর্তী কারিগরবাড়ি এলাকার এনহাজের মালিকানাধীন খামারে ৮০০টি এবং আজিজের খামারে ২০০ মুরগি মারা যায়।

তিনি বলেন, ‘মারা যাওয়া প্রতিটি মুরগি ৯০০ গ্রাম থেকে ১২৫০ গ্রাম ওজনের ছিল। প্রতিটি মুরগি পালনে খরচ পড়েছিল ১৩০ টাকা। সেই হিসাবে প্রায় ৯১ হাজার টাকার ক্ষতি হয়েছে তাঁর। ’

এদিকে হঠাৎ করে খামারে মড়ক দেখা দেওয়ায় খামারিরা আতঙ্কে ভুগছেন। সবাই বেশ চিন্তিত ও হতাশ। তাঁরা এ ব্যপাারে প্রাণিসম্পদ কর্তৃপক্ষের সহায়তা কামনা করেন।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক মাসুদুজ্জামান বলেন, ‘মারা যাওয়া মুরগিগুলো পরীক্ষা না করা পর্যন্ত বিষয়টি নিয়ে নিশ্চিত কিছু বলা যাবে না।

পরীক্ষার পর করণীয় সম্পর্কে বলা যেতে পারে। ’

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, মুরগির খামারে অনেকে যথাযথ নিয়ম ও পদ্ধতি অনুসরণ করেন না। তাই প্রায়ই দুর্ঘটনা ঘটে থাকে।

রাউজান উপজেলা ভেটেরিনারি সার্জন লেলিন দে বলেন, ‘তিনি এ ব্যাপারে কিছুই জানেন না। ’


মন্তব্য