kalerkantho

গরুচুরি

চারজনকে গণপিটুনি

চকরিয়া প্রতিনিধি   

১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



চোরাই গরুভর্তি গাড়ি নিয়ে পালানোর সময় গণপিটুনির শিকার হয়েছে চারজন। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁদের উদ্ধার করে পুলিশ হাসপাতালে ভর্তি করে। আহতদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

গতকাল শনিবার ভোর পাঁচটার দিকে চকরিয়া উপজেলার উপকূলীয় ইউনিয়ন বদরখালী নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির সামনে এ ঘটনা ঘটে।

গণপিটুনির শিকার চারজন হলেন উপজেলার পূর্ব বড় ভেওলা ইউনিয়নের ঈদমণি গ্রামের মৃত ছৈয়দ নূরের ছেলে মিজানুর রহমান, কবির আহমদের ছেলে মো. আবদুল্লাহ, মৃত দৌলত হোসেনের ছেলে নুরুল আমিন ও চকরিয়া পৌরসভার হাসপাতাল পাড়ার মৃত সিরাজ আহমদের ছেলে কামাল উদ্দিন ড্রাইভার।  

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, শুক্রবার দিবাগত রাতে বদরখালী ইউনিয়নের একাধিক স্থান থেকে কয়েকটি গরু চুরির পর তা পিকআপ ভ্যানে অন্যত্র পাচারের জন্য অপেক্ষা করছিলেন তাঁরা। ভোররাতে পর পর তিনস্থানে জনতার ব্যারিকেডের মুখে পড়েন তাঁরা। অবশ্য ওই তিনস্থান থেকে তাঁরা পালিয়ে যাওয়ার পর চুরি করা গরু অজ্ঞাত স্থানে রেখে পালানোর চেষ্টা চালান। তবে শেষমেশ বদরখালী নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির অদূরে ক্ষুব্ধ জনতাও একটি গাড়ি আড়াআড়ি করে রেখে ব্যারিকেড দিয়ে এদের আটকায়। এ সময় পিকআপটি আড়াআড়ি করে রাখা অপর গাড়িকে ধাক্কা দিয়ে পালানোর চেষ্টা করলেও খাদে পড়ে যায়। এ অবস্থায় তাঁদের পিটুনি দেয় জনতা।

পরে পুলিশ তাঁদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

বদরখালী নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক মো. জাহাঙ্গীর আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।  

চকরিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. কামরুল আজম বলেন, ‘আহতদের পুলিশ পাহারায় চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। ’


মন্তব্য