kalerkantho


ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে পাঠদান

জাকির হোসেন, দীঘিনালা   

২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে পাঠদান

দীঘিনালার বড়াদম উচ্চবিদ্যালয় ভবনের জরাজীর্ণ ছাদ। ছবি : কালের কণ্ঠ

খাগড়াছড়ির দীঘিনালা বড়াদম উচ্চ বিদ্যালয়ের একটি ভবন জরাজীর্ণ হয়ে পড়েছে। সেখানে ঝুঁকি নিয়ে চলছে পাঠদান। ওই ভবনে রয়েছে বিদ্যালয়ের পাঠাগারও। ২২ বছর আগে নির্মিত ভবনটি যেকোনো সময় ধসে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে।

বিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, ১৯৯৪-১৯৯৫ অর্থবছরে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের অর্থায়নে দুই কক্ষের ভবনটি নির্মাণ করা হয়। ভবনের একটি কক্ষে চলে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের পাঠদান, অপরটি পাঠাগার। ইতোমধ্যে ভবনটির পলেস্তারা খসে পড়ছে। বর্ষায় ছাদ চুঁইয়ে পানি পড়ে। পুরো ভবন হয়ে পড়েছে জরজীর্ণ।

নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী তিনা চাকমা, সুভাষী চাকমা ও বর্ণা চাকমা জানায়, জরাজীর্ণ ভবনে ক্লাস করার সময় প্রতি মুহূর্তে ভয়ে তাড়া করে সবাইকে। অবস্থানের সময় কখন পলেস্তারা খসে মাথায় পড়ে সে আতঙ্কে থাকে শিক্ষার্থীরা।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক যুগস্মৃতি চাকমা বলেন, ‘সাত শতাধিক শিক্ষার্থী রয়েছে বিদ্যালয়ে। শ্রেণিকক্ষের তুলনায় শিক্ষার্থী বেশি হওয়ায় অন্য কোনো কক্ষে পাঠদানও সম্ভব হচ্ছে না। ’

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও দীঘিনালা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নবকমল চাকমা বলেন, ‘ভবনটির অবস্থা খুবই করুণ। যেকোনো সময় ধসে পড়তে পারে। ’


মন্তব্য