kalerkantho

গহিন অরণ্যে ইটভাটা

তোফায়েল আহমদ, কক্সবাজার   

২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



মিয়ানমার সীমান্তবর্তী নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুমের গহিন অরণ্যে অবৈধভাবে গড়ে ওঠেছে কয়েকটি ইটভাটা। বনভূমির পাহাড় কাটা মাটি দিয়ে তৈরি করা হচ্ছে ইট। আর জ্বালানি হিসেবে জোগান দেওয়া হচ্ছে সংরক্ষিত বনাঞ্চলের গাছগাছালি। বনভূমি লণ্ডভণ্ড হয়ে গেলেও দেখার যেন কেউ নেই। অভিযোগ ওঠেছে, এলাকাবাসী এ ব্যাপারে প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দেওয়ার পরও বহাল তবিয়তে চলছে ইট তৈরি।

কক্সবাজারের উখিয়া সদর থেকে পাঁচ কিলোমিটার দূরে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়নের রেজু মগপাড়া, চাইল্যাতলী এলাকার পূর্ব দিকের গহিন অরণ্যে ইটভাটা স্থাপন করা হয়েছে। ইটভাটা মালিক স্থানীয় বালুখালী গ্রামের নুরুল হক কোম্পানী জানান, তাঁর কাছে ইটভাটার কোনো বৈধ কাগজপত্র নেই। তবে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে আবেদন করে ইট তৈরির কাজ চলছে।

ঘুমধুম ইউনিয়নের চাইল্যাতলীর ইটভাটার মালিক মেম্বার লক্ষ্মীয়ান্তর বলেন, ‘ইটভাটা তৈরি করে ইট বিক্রি করছি সত্য। তবে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে ইটভাটার জন্য আবেদন করা হয়েছে। ’

কক্সবাজার পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক সর্দার শরিফুল ইসলাম জানান, সংশোধিত আইনে সংযোজিত পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ ও উন্নয়নের স্বার্থে আধুনিক প্রযুক্তির ইটভাটা অর্থাৎ জিগজাগ কিলন, টানেল কিলন বা অনুরূপ উন্নততর প্রযুক্তিতে ইটভাটা স্থাপন করতে হবে। কৃষিজমি, পাহাড় বা টিলা থেকে মাটি কেটে বা সংগ্রহ করে ইটের কাঁচামাল হিসেবে ব্যবহার করা যাবে না। কর্তৃপক্ষের অনুমোদনক্রমে ইট তৈরি করার জন্য মজা পুকুর, খালবিল, নদনদী, চরাঞ্চল বা পাহাড় কেটে মাটি সংগ্রহ করা যাবে না। পার্বত্য জেলায় পরিবেশ উন্নয়ন কমিটির নির্ধারিত স্থান ছাড়া অন্য কোনো স্থানে ইটভাটা তৈরি সম্পূর্ণ নিষেধ।

তিনি বলেন, ‘বান্দরবানের বিভিন্ন স্থানে প্রায় ২৬টি ইটভাটা রয়েছে। যার একটিও নীতিমালায় পড়ে না।

ঘুমধুম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এ কে এম জাহাঙ্গীর আজিজ অবৈধ ইটভাটা উচ্ছেদের ব্যাপারে স্থানীয় সাংবাদিকদের সহযোগিতা কামনা করে বলেন, ‘পত্রপত্রিকায় ফলাও করে ইটভাটার তথ্য প্রচার করা না হলে তা বন্ধ করা সম্ভব হবে না। ’

তিনি মনে করেন, ‘ঘুমধুম ইউনিয়নে অবৈধভাবে গড়ে ওঠা এসব ইটভাটার কারণে পাহাড় কাটা, বনজ সম্পদ ধ্বংসের তাণ্ডবলীলা চলছে। ’

উপজেলা পরিষদের মাসিক সমন্বয় সভায় যত্রতত্র ইটভাটা তৈরির বিষয়টি উত্থাপন করে এসব বন্ধের দাবি তুলবেন বলে জানান তিনি।


মন্তব্য