kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বড় দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেল শাটল ট্রেন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৯ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



সীতাকুণ্ডের ফৌজদারহাটে বড় ধরনের দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেয়েছে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (পিডিবি) শাটল ট্রেন। গতকাল শনিবার ভোরে চট্টগ্রাম বন্দর ইয়ার্ড (সিজিপিওয়াই) থেকে ছেড়ে আসা শাটলটি ফৌজদারহাট স্টেশনে সিগন্যাল অমান্য করে সামনের দিকে এগিয়ে যায়।

বিষয়টি বুঝতে পেরে স্টেশনমাস্টার টেকপয়েন্টে অলটার করে দিলে মেইন লাইনে উঠার আগেই ইঞ্জিন লাইনচ্যুত হয়। এতে বড় ধরনের দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পায় ট্রেনটি।

রেলওয়ে সূত্রে জানা গেছে, সিজিপিওয়াই থেকে শনিবার ভোর পৌনে চারটার দিকে ছেড়ে আসা পিডিবি শাটল (ইঞ্জিন নম্বর ২২৩২) ট্রেনটি ফৌজদারহাট হয়ে চট্টগ্রাম স্টেশনে আসার কথা। সেখান থেকে দোহাজারী ১০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জন্য ফার্নেস অয়েল নিয়ে দোহাজারীর দিকে রওনা হওয়ার কথা ছিল।

কিন্তু ট্রেনটি ফৌজদারহাট স্টেশনের সিগন্যাল অমান্য করে সামনের দিকে এগিয়ে গেলে স্টেশনমাস্টার বিষয়টি বুঝতে পারেন। স্টেশনমাস্টার বড় ধরনের দুর্ঘটনার বিষয়টি বুঝতে পেরে শাটল  ট্রেনটি মেইন লাইনে ওঠার আগে লুপ লাইনে থাকা অবস্থায় টেকপয়েন্টে অলটার করে দেন। এতে ইঞ্জিন লাইনচ্যুত হলেও বড় ধরনের দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পায়।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, পিডিবি শাটল ট্রেনের ইঞ্জিন মেইন লাইনে ওঠে লাইনচ্যুত হলে চট্টগ্রামের সঙ্গে সারাদেশের রেল যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যেত। পাশাপাশি তেলবাহী ওয়াগন পড়ে গেলে কোটি টাকার তেল বিনষ্ট হতো।

সূত্র জানায়, পিডিবি শাটলের প্রধানচালক খোরশেদ আলম ঘুমের ঘোরে থাকার কারণে স্টেশনমাস্টার সিগন্যাল দিলেও তা লক্ষ করেননি। অন্যদিকে, বড় ধরনের দুর্ঘটনা ও কোটি টাকার তেল রক্ষা পেলেও সকাল ১১টা পর্যন্ত রেলের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হতে পারেননি বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিভাগীয় মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার (লোকো) সাইফুল ইসলাম সকাল ১১টা ৪০ মিনিটে বলেন, লুপ লাইনে পিডিবি শাটলের ইঞ্জিন লাইনচ্যুত হয়েছে। তবে মেইল লাইন দুটি ফ্রি থাকায় ট্রেন যোগাযোগ স্বাভাবিক রয়েছে। লাইনচ্যুত ইঞ্জিন উদ্ধারে কাজ শুরু করেছেন জানিয়ে তিনি বলেন, আশা করি দুপুর একটার মধ্যে উদ্ধার কাজ সম্পন্ন হবে।


মন্তব্য