kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।

সর্তা খাল ভাঙছেই

জাহেদুল আলম, রাউজান   

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



সর্তা খাল ভাঙছেই

সর্তা খালের ভাঙনের ছবিটি রাউজানের গহিরা থেকে তোলা। ছবি : কালের কণ্ঠ

 

 

রাউজানে সর্তা খালের ভাঙন অব্যাহত রয়েছে। প্রায় প্রতিদিন ওই খালে সড়ক, বসতবাড়ি, ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান বিলীন হয়ে যাচ্ছে।

এ পর্যন্ত উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়নের বইজ্যার হাট, হলদিয়া, উত্তর সর্তা, গর্জনিয়া, পশ্চিম ডাবুয়া. ফতেহনগর, নতুন হাট, চিকদাইর হক বাজার, দক্ষিণ সর্তা, গহিরা দলইনগর, গহিরা কোতোয়ালীঘোনা এলাকার শত শত বসতঘর, ফসলি জমি এবং এলাকার মানুষের চলাচলের কয়েকটি সড়ক বিলীন হয়ে গেছে।

সরেজমিন দেখা যায়, রাউজানের চিকদাইর ইউনিয়নের কালচাঁন্দ চৌধুরী হাট থেকে দক্ষিণ সর্তা করিম ঘাটা সৃষ্টি মহাজন সেতু পর্যন্ত সড়কটি খালে বিলীন হয়ে যাওয়ায় সড়ক দিয়ে যানবাহন চলাচল করতে পারছে না।

দক্ষিণ সর্তা এলাকার সড়কের ভাঙন রোধে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কার্যালয় ও পানি উন্নয়ন বোর্ড এক বছর আগে বাঁশের খুঁটি পুঁতে বালুর বস্তা দিয়ে বাঁধ দেয়। কিন্তু পানির স্রোতে ওই বাঁধ ও বাঁশের খুঁটিগুলো খালে হারিয়ে গেছে। খালের ভাঙনে দক্ষিণ সর্তা সড়ক বিলীন হয়ে যাওয়ায় এলাকার বাসিন্দা ও স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন।

এলাকার বাসিন্দা মোজ্জাফর আহম্মদ কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘গহিরা দলইনগর ও দক্ষিণ সর্তা সড়ক খালের ভাঙনে বিলীন হয়ে গেছে। এখানকার শতাধিক বসতঘর যেকোনো সময় খালের গর্ভে বিলীন হওয়ার শঙ্কা দেখা দিয়েছে। ’

নাছির উদ্দিন সিদ্দিকী নামের স্থানীয় এক সমাজসেবক বলেন, ‘গহিরা ইউনিয়নের দলইনগর এলাকার কয়েকটি বাড়ির অর্ধশতাধিক বসতঘর ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান খালে হারিয়ে গেছে। আরো শতাধিক বসতঘর ভাঙনের হুমকির মুখে রয়েছে। বিশেষ করে একটি নির্মাণাধীন মসজিদ ভাঙনের মুখে পড়েছে। ’

তিনি জানান, নোয়াজিশপুর ইউনিয়নের ফতেহনগর মিলন মাস্টার ঘাটায় শতাধিক বসতঘর বিলীন হয়ে গেছে। ডাবুয়া ইউনিয়নের পশ্চিম ডাবুয়া দোস্ত মোহাম্মদ চৌধুরী বাড়ি খালে বিলীন হয়ে যায়। ওই বাড়ির শতাধিক পরিবার ডাবুয়া বাইন্যার হাট এবং রাউজন ও চট্টগ্রাম শহরের বিভিন্ন স্থানে বাসা ভাড়া নিয়ে পরিবার পরিজন নিয়ে বসবাস করছেন।

চিকদাইর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রিয়তোষ চৌধুরী জানান, সর্তা খালের ভাঙনে দক্ষিণ সর্তা সড়ক খালে বিলীন হয়ে গেছে। ভাঙন প্রতিরোধে ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য সংশিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।


মন্তব্য