kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।

এমবিবিএস প্রথম পর্বের ফল

মেয়েদের জয়জয়কার

নূপুর দেব   

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



মেয়েদের জয়জয়কার

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন সরকারি-বেসরকারি ১৪ মেডিক্যাল কলেজের পেশাগত এমবিবিএস পরীক্ষার প্রথম পর্বের ফলাফলে মেয়েদের জয়জয়কার। মেধা তালিকার ১০টির মধ্যে পঞ্চম স্থানে যুগ্মভাবে দুজনসহ ১১ জনের মধ্যে ১০ জনই চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজের শিক্ষার্থী।

সবার সেরা হলেন কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজের মোছাম্মৎ মানজিয়া নুর। সব মিলিয়ে মেধা তালিকায় স্থান পাওয়া ১১ জনের মধ্যে ১০জনই মেয়ে। ছেলেদের ‘মান রক্ষা’ করেছেন নেপালের হিমেল পান্থি। চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজের এই শিক্ষার্থী হয়েছেন ৮ম।

গতকাল সোমবার বিকেলে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা অনুষদ ওই ফলাফল প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত ফলাফলে দেখা গেছে, এবার পাসের হার ৭১ দশমিক ১০ শতাংশ। ফল প্রকাশের পর উত্তীর্ণ ছাত্রছাত্রীরা আনন্দ-উল্লাসে মেতে উঠেন।

মেধা তালিকায় দ্বিতীয় হয়েছেন ইসরাত পারভীন, তৃতীয় নিশাত আনজুম নওরিন, চতুর্থ জেরিন তাসনিম রাকা, পঞ্চম আনিকা রহমান ও নওশীন জেবিন, ষষ্ঠ শায়েরা তাসফিয়া, সপ্তম ফারিহা তাবাসসুম অনিকা, নবম আতকিয়া মাহমুদা তাহা এবং ১০ম রাবেয়া আখতার। তাঁরা সবাই চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজের ছাত্রী।

ফলাফল বিশ্লেষণে দেখা গেছে, পেশাগত এমবিবিএস পরীক্ষায় প্রথম পর্বে ১ হাজার ৩৯ পরীক্ষার্থীর মধ্যে ২৫ জন অনুপস্থিত ছিলেন। অংশগ্রহণ করেন ১ হাজার ১৪ জন। এর মধ্যে পাস করেছেন ৭২১ জন। পাসের হার ৭১ দশমিক ১০ শতাংশ। ৪৫ জনের পরীক্ষা স্থগিত রয়েছে। স্থগিতকৃতরা সবাই ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষায় ৪০ নম্বরের কম পেয়ে ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থী।

জানা গেছে, গত ১১ আগস্ট এই পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণা করার কথা ছিল। কিন্তু ৪০ নম্বরের কম পেয়ে ভর্তি সংক্রান্ত জটিলতার কারণে ফলাফল প্রকাশিত হয়নি। গত রবিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অধ্যাপক ড. মোস্তাফিজুর রহমান সিদ্দিকী স্বাক্ষরিত ফলাফল গতকাল সোমবার প্রকাশ করা হয়।

১৪টি মেডিক্যাল কলেজের মধ্যে পাঁচটি সরকারি এবং নয়টি বেসরকারি। সরকারি কলেজগুলো হল চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ, কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ, নোয়াখালীর আব্দুল মালেক উকিল মেডিক্যাল কলেজ, কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজ ও রাঙামাটি মেডিক্যাল কলেজ। এর মধ্যে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ থেকে মেধা তালিকায় ১০টি স্থানসহ ১৯৪ জন পাস করেছেন। কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজে মেধা তালিকায় ১ম স্থানসহ পাস করেছেন ৯৪ জন। এছাড়া নোয়াখালী মেডিক্যাল কলেজ থেকে ৪৩, কক্সবাজার ৩৮ ও রাঙামাটি থেকে ৩১ জন পাস করেছেন। বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজগুলোর মধ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিক্যাল কলেজ থেকে ১৭জন, চট্টগ্রাম ইন্টারন্যাশনাল মেডিক্যাল কলেজ থেকে ৩৩, চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতাল মেডিক্যাল কলেজ থেকে ৮১, মেরিন সিটি মেডিক্যাল কলেজ থেকে ১, সাউদার্ন মেডিক্যাল কলেজ থেকে ৩১ ও চট্টগ্রাম বিজিসি ট্রাস্ট মেডিক্যাল কলেজ থেকে ৪৬, কুমিল্লার সেন্ট্রাল মেডিক্যাল কলেজ থেকে ৩৯, ময়নামতি মেডিক্যাল কলেজ থেকে ৩৮ এবং ইস্টার্ন মেডিক্যাল কলেজ থেকে ৩৫ জন পাস করেছেন।

চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ সেলিম মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘পেশাগত এমবিবিএস পরীক্ষার প্রথম পর্বে মেয়েরা এবার অভূতপূর্ব ভালো ফলাফল দেখিয়েছে। মেধা তালিকায় প্রথম স্থান না পেলেও অন্য সবকটি স্থান আমাদের শিক্ষার্থীদের দখলে। মেধা তালিকায় একমাত্র ছাত্রও আমাদের কলেজের। শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের যৌথ প্রচেষ্টায় ভালো ফল হয়েছে। ’

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি রেজিস্ট্রার এ কে এম মাহফুজুল হক বলেন, ‘গত মে মাসে ওই পরীক্ষা সম্পন্নের পর ১১ আগস্ট ফলাফল প্রকাশের কথা ছিল। কিন্তু কয়েকটি বেসরকারি কলেজের ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষায় ৪০ নম্বরের কম পেয়ে ভর্তি হওয়ায় এদিন ফলাফল প্রকাশ করা হয়নি। তাদের বিষয়টি নিয়ে ইতোমধ্যে আমরা উচ্চ আদালতে গিয়েছি। তাই ওই ৪৫ জনের ফলাফল স্থগিত করেই অন্যদের ফল প্রকাশ করেছি। ’


মন্তব্য