kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


উত্তরবঙ্গ থেকে পশু আসছে

শিমুল নজরুল   

৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



উত্তরবঙ্গ থেকে পশু আসছে

চট্টগ্রামের পশুর হাটগুলোতে কোরবানির গরু, মহিষ ও ছাগল আসতে শুরু করেছে। নগরীর সবচেয়ে বড় পশুর হাট সাগরিকা বাজারে গত শুক্রবার ও শনিবার গরুভর্তি প্রায় ৪০০টি ট্রাক এসেছে উত্তরবঙ্গ থেকে।

গতকাল শনিবার বিকেলে সাগরিকা বাজার ব্যবস্থাপনা পরিষদের আহ্বায়ক এম শওকত আলী কালের কণ্ঠকে জানান, কোরবানির চালান হাটে আসতে শুরু করেছে। গত দুদিনে চার শতাধিক ট্রাকে গরু এসেছে সাগরিকা বাজারে। রাস্তায় যানজট ও বিভিন্ন কারণে অনেক ট্রাক পথে আটকে আছে। চট্টগ্রামের ব্যবসায়ীরা এখন উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন হাট থেকে গরু সংগ্রহে ব্যস্ত। বিভিন্ন সীমান্ত করিডর দিয়ে গরু আমদানি হচ্ছে।

সাগরিকা পশু হাটে গরু নিয়ে আসা বেপারিরা জানান, রাজশাহী, যশোর, কুড়িগ্রাম, নাটোর, রৌমারী, লালমনিরহাট, কুষ্টিয়া ও সাতক্ষীরা থেকে চট্টগ্রামে গরু আনতে ২০ থেকে ২৮ ঘণ্টা সময় লাগছে। পথে পথে পুলিশি হয়রানি ও চাঁদাবাজদের উৎপাতে পরিবহন খরচ বেড়ে যাচ্ছে। কোরবানির ঈদ সামনে রেখে ট্রাক ভাড়াও বাড়িয়ে দিয়েছে মালিকপক্ষ। উত্তরবঙ্গ থেকে এখন ট্রাকে গরু আনতে ভাড়া গুনতে হচ্ছে প্রায় ৬০ থেকে ৭০ হাজার টাকা। গতমাসেও এই ভাড়া ছিল অর্ধেক অর্থাৎ ২৫ থেকে ৩০ হাজার টাকা।

গরুর ব্যবসায়ীরা বলেন, এই বাড়তি ভাড়ার টাকা গরুর দামের সাথে যোগ করতে হবে। এতে ক্রেতাদেরকে বেশি দামে গরু কিনতে হবে।

সাগরিকা হাটের কয়েকজন ব্যবসায়ী নাম প্রকাশ না করার শর্তে অভিযোগ করেন, উত্তরবঙ্গ থেকে গরু নিয়ে আসার সময় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সীতাকুণ্ড গোলচক্কর এলাকায় স্থানীয় সন্ত্রাসীরা ট্রাক থেকে গরু নামিয়ে নিতে চায়। সরকারদলীয় লোক পরিচয় দেওয়ায় পুলিশও তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয় না।

পশুর হাটকে কেন্দ্র করে আশেপাশে গড়ে ওঠা ডোগা (খুঁটি) ব্যবসায়ীদের একাধিক দলের মধ্যে দ্বন্দ্বের জের ধরে গত বুধবার রাতে সীতাকুণ্ডের বাংলাবাজার এলাকায় সংঘর্ষ বাঁধে। এ সময় সাইফুল ইসলাম (২৮) নামে এক যুবক গুলিবিদ্ধ হন।

জানা যায়, সাগরিকা পশুহাটে আলী আকবর, বশর ও সবুজ নামে তিনজন ডোগা মালিকের পৃথক দল রয়েছে। তারা গরু নামানোর জন্য গরুপ্রতি দুই হাজার টাকা করে আদায় করছে। তাদের বিরোধের জের ধরে সাধারণ গরু ব্যবসায়ীরা হয়রানির শিকার হচ্ছেন বলে অভিযোগ ওঠেছে।

সাগরিকা গবাদি পশু ব্যবসায়ী সমিতির অফিস সেক্রেটারি কাজী আমিনুল ইসলাম কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে কোরবানির পশু চট্টগ্রামে আসতে শুরু করেছে। দুই/একদিনের মধ্যে নগরী পশুর হাটগুলোতে বিকিকিনি জমে ওঠবে। প্রধান দুটি স্থায়ী হাট ছাড়াও রবিবার থেকে নগরীর বিভিন্ন প্রান্তে বসবে ছয়টি অস্থায়ী হাট। ’


মন্তব্য