kalerkantho

শনিবার । ২১ জানুয়ারি ২০১৭ । ৮ মাঘ ১৪২৩। ২২ রবিউস সানি ১৪৩৮।


স্বেচ্ছাশ্রমে সড়ক উন্নয়ন

আসাদুজ্জামান দারা, ফেনী   

২৪ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



বেহাল ফুলগাজী-টেটেশ্বর-পরশুরাম সড়ক উন্নয়নে অবশেষে উদ্যোগ নিয়েছেন এলাকাবাসী। চাঁদা তুলে স্বেচ্ছাশ্রমে তাঁরা শুরু করে দিয়েছেন কাজ।

ফুলগাজী ও পরশুরাম উপজেলার সীমানার মধ্যবর্তী বক্সমাহমুদ ইউনিয়নের একটি অবহেলিত গ্রামের নাম ‘কিসমত টেটেশ্বর’। এই গ্রামে প্রায় দেড় শ পরিবারের বসবাস। গ্রামের মূল সড়কটি প্রায় ১৫০০ ফুট দীর্ঘ। গত ৩০ বছরেও উন্নয়ন হয়নি গুরুত্বপূর্ণ ওই সড়কের। সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে এলাকাবাসীকে। অবশেষে স্থানীয় যুব সমাজের ডাকে সড়ক নির্মাণের লক্ষ্যে গ্রামবাসী এক হয়ে বৈঠকের আয়োজন করে।

বৈঠকে গ্রামের সর্বস্তরের মানুষ নিজ উদ্যোগে চাঁদা সংগ্রহ করে সড়কটিতে ইট বসানোর সিদ্ধান্ত নেন। ইতোমধ্যে এলাকাবাসীর উদ্যোগে সড়কে এক লাখ টাকার মাটি ফেলে ভরাট করা হয়েছে। এখন ইট বসানোর কাজ চলছে।

জানা গেছে, যুবকরা এলাকার ঘরে ঘরে গিয়ে চাঁদা সংগ্রহ করছেন। পাশাপাশি নিজেরাও স্বেচ্ছাশ্রমে এগিয়ে নিচ্ছেন সড়কের উন্নয়নকাজ। এই উদ্যোগকে গ্রামের বাইরের অনেকে স্বাগত জানাচ্ছেন এবং অর্থ দিয়েও সহযোগিতা করছেন। এই পর্যন্ত প্রায় তিন লাখ টাকা সংগ্রহ হয়েছে।

এলাকাবাসী বলেন, উদ্যোগটি অন্য গ্রামের জন্যও একটি ‘মডেল’ হিসেবে কাজ করবে। কারণ সবার একতা থাকলে এবং ভালো কাজের উদ্যোগ নিলে সব কাজই করা সম্ভব। এই পর্যন্ত সংগৃহীত তিন লাখ টাকা ওই তিন কিলোমিটার দীর্ঘ সড়ক উন্নয়নে কিছুই না। এর পরও গ্রামবাসী তীব্র মনোবল নিয়ে রাস্তার কাজ শুরু করে দিয়েছেন।

গ্রামবাসীর পক্ষে স্থানীয় যুবক রাজু জানান, তিন কিলোমিটার রাস্তার কাজ শেষ করতে আরো অনেক টাকা প্রয়োজন। তিনি স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও সমাজের বিত্তবানদের প্রতি সাহায্যের আবেদন জানিয়েছেন।

পরশুরাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মনোয়ারা বেগম বলেন, ‘বিষয়টি আমার জানা ছিল না। এই সড়ক নির্মাণের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে করা হবে। ’


মন্তব্য