kalerkantho


প্রকাশিত সংবাদ প্রসঙ্গে

২২ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



গত ১৩ মার্চ কালের কণ্ঠের দ্বিতীয় রাজধানীতে ‘লবণবাহী ট্রলারে চাঁদাবাজি, সুযোগ বুঝে ডাকাতি’ শিরোনামে প্রকাশিত প্রতিবেদনের ব্যাখ্যা দিয়েছেন চট্টগ্রাম জল পরিবহন কার্গো ট্রলার শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি নুরুদ্দিন হোসেন মঞ্জু।

তিনি বলেন, ‘গঠনতন্ত্র মোতাবেক সংগঠনের সদস্যদের কাছ থেকে ১০ থেকে ২০ টাকা চাঁদা রসিদের মাধ্যমে আদায় করা হয়। তা শ্রমিকদের কল্যাণেই ব্যয় হয়। সুতরাং মালিকদের কাছ থেকে চাঁদা আদায় এবং ট্রলারে ডাকাতির খবর ভিত্তিহীন। ’ তিনি জানান, তাঁর বিরুদ্ধে কোনো মামলা নেই। তিনি ‘চট্টগ্রাম কার্গো ট্রলার মালিক সমিতি’ নামের সংগঠনটি ‘ভুয়া’ বলে দাবি করেছেন।

প্রতিবেদকের বক্তব্য : চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার, কোস্টগার্ড ও যুগ্ম শ্রম পরিচালক বরাবরে চট্টগ্রাম কার্গো ট্রলার মালিক সমিতির লিখিত অভিযোগ এবং সংশ্লিষ্ট সব পক্ষের সঙ্গে কথা বলে প্রতিবেদনটি তৈরি করা হয়েছে। এতে চট্টগ্রাম জল পরিবহন কার্গো ট্রলার শ্রমিক ইউনিয়ন সভাপতি নুরুদ্দিন হোসেন মঞ্জুর মন্তব্যও ছাপা হয়।


মন্তব্য