kalerkantho

বুধবার । ১৮ জানুয়ারি ২০১৭ । ৫ মাঘ ১৪২৩। ১৯ রবিউস সানি ১৪৩৮।


সম্মেলন ঘিরে বিএনপির নেতাকর্মীরা উজ্জীবিত

শিমুল নজরুল   

১৭ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



প্রায় ছয় বছর পর আগামী শনিবার বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) কেন্দ্রীয় সম্মেলন হচ্ছে। ওই সম্মেলনকে কেন্দ্র করে চট্টগ্রাম বিএনপির নেতাকর্মীরা এখন ঢাকামুখী। বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনা বিরাজ করছে তৃণমূলেও। প্রায় দুই হাজার নেতাকর্মী ঢাকায় যাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন নগর বিএনপির সিনিয়র নেতারা। ইতোমধ্যে অনেকে পৌঁছে গেছেন রাজধানীতে।

চট্টগ্রাম নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেন কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘দেশে প্রতিকূল রাজনৈতিক পরিবেশের কারণে দীর্ঘদিন দলের সম্মেলন হয়নি। তাই আসন্ন সম্মেলন ঘিরে নেতাকর্মীরা বেশ উজ্জীবিত। ’

জানা গেছে, এবার সম্মেলনে বিএনপির নতুন কমিটিতে চট্টগ্রামের ৮ থেকে ১০ নেতা দায়িত্ব পাবেন। তাঁদের মধ্যে দুই থেকে তিনজন স্থায়ী কমিটির সদস্য হতে পারেন। এছাড়া ভাইস চেয়ারম্যান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা, যুগ্ম মহাসচিবসহ কেন্দ্রীয় বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদ পেতে তোড়জোড় শুরু করেছেন অনেকে।

ডা. শাহাদাৎ জানান, কেন্দ্রীয় সম্মেলনে মহাসচিব ও যুগ্ম মহাসচিবের নাম ঘোষণা হতে পারে। কমিটির বাকি পদ পরবর্তী সময়ে ঘোষণার সম্ভাবনা রয়েছে।

নগর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ান বলেন, ‘দীর্ঘদিন পর দলের কেন্দ্রীয় সম্মেলন হচ্ছে। এতে নেতাকর্মীরা সাংগঠনিকভাবে আরো শক্তিশালী হচ্ছেন। সম্মেলনে অংশ নিতে অনেক নেতাকর্মী ঢাকা যাচ্ছেন। ’  তিনি জানান, নগর কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এবং ১১টি সাংগঠনিক থানার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বা আহ্বায়ক ও সদস্য সচিবসহ দুই নারী প্রতিনিধি সম্মেলনে কাউন্সিলর হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। তাঁদের পাশাপাশি নগর, থানা, ওয়ার্ড ও ইউনিট পর্যায়ের নেতাকর্মীরাও ঢাকায় যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। নেতাকর্মীরা জানান, সম্মেলনে চট্টগ্রাম থেকে আব্দুল্লাহ আল নোমান, এম মোরশেদ খান ও আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী স্থায়ী কমিটির সদস্য হতে পারেন। এছাড়া নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেন তোড়জোড় করছেন বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক কিংবা আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক পদের জন্য। বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদকের জন্য তদবির করছেন উত্তর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আসলাম চৌধুরীও। তিনি বর্তমানে সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক পদে রয়েছেন। উত্তর জেলা বিএনপির সিনিয়র নেতা গিয়াসউদ্দিন কাদের চৌধুরী, এস এম ফজলুল হক, সন্দ্বীপের মোস্তফা কামাল পাশা, অধ্যাপক কামাল উদ্দিনের নামও শোনা যাচ্ছে কেন্দ্রীয় কমিটির নানা পদে। একইভাবে দক্ষিণ জেলা বিএনপির সভাপতি জাফরুল ইসলাম চৌধুরী, গাজী শাহজাহান জুয়েল, সরওয়ার জামাল নিজাম প্রমুখ পদ পেতে পারেন বলে জানা গেছে।


মন্তব্য