kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ফেনীতে এশায়াত মাহফিল

১৩ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



ফেনীতে এশায়াত মাহফিল

পরশুরামে এশায়াত মাহফিলে বক্তব্য দেন (ডান থেকে) অধ্যাপক মুহাম্মদ ফোরকান মিয়া, পরশুরাম উপজেলা চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন মজুমদার ও অধ্যাপক জালাল আহমদ।

আল্লাহ ও রাসুল প্রেমিক হতে শরীয়তের পাশাপাশি তরিক্বত চর্চা করার আহ্বান জানিয়েছেন কাগতিয়া আলীয়া গাউসুল আজম দরবার শরীফের মোর্শেদে আজম অধ্যক্ষ ছৈয়দ মুহাম্মদ মুনির উল্লাহ্ আহমদী। তিনি বলেন, ‘যুগশ্রেষ্ঠ আধ্যাত্মিক মনীষী গাউসুল আজম প্রতিষ্ঠিত কাগতিয়া দরবারে রয়েছে শরীয়ত ও তরিক্বতের অভূতপূর্ব সমন্বয় এবং কোরআন-সুন্নাহ্র পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়ন।

পবিত্র জশেন জুলুছে ঈদে মিলাদুন্নবী (দ.) ও ফাতেহায়ে এয়াজদাহুম উপলক্ষে শুক্রবার মুনিরীয়া যুব তবলীগ কমিটি ফেনী জেলা শাখার এশায়াত মাহফিলে এ কথা বলেন তিনি। পরশুরাম মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় ময়দানে পরশুরাম উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন মজুমদারের সভাপতিত্বে মাহফিলে অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. মুহাম্মদ আবুল মনছুর, গণিত বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক জালাল আহমদ, পরশুরাম উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান এনামুল করিম মজুমদার, কাউন্সিলর মুহাম্মদ আব্দুল মান্নান, ফেনী জেলা ইমাম সমিতির সভাপতি মাওলানা মুহাম্মদ আব্দুর রউফ প্রমুখ। প্রধান আলোচক ছিলেন সংগঠনের মহাসচিব অধ্যাপক মুহাম্মদ ফোরকান মিয়া। আরও বক্তব্য দেন আল্লামা মুহাম্মদ আশেকুর রহমান, আল্লামা মুহাম্মদ সেকান্দর আলী ও আল্লামা মুহাম্মদ ফোরকান।

কামাল মজুমদার বলেন, ‘তরিক্বত চর্চার মাধ্যমে তরুণ ও যুবকদের চরিত্রে ও জীবনযাপনে যে আমূল পরিবর্তন ঘটানো সম্ভব এর উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত কাগতিয়া দরবার। ’ বিজ্ঞপ্তি


মন্তব্য