kalerkantho


রাবারবাগান ব্যবস্থাপনা প্রকল্প

জিএমকে সরিয়ে দেওয়া হল

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি   

৮ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



কিষ সংগ্রহকারীদের (টেপার) দাবির মুখে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের উঁচু ভূমি বন্দোবস্তিকরণ রাবারবাগান ব্যবস্থাপনা প্রকল্পের জেনারেল ম্যানেজার (জিএম) সুখময় চাকমাকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (ডিজিএম) পুষ্পস্মৃতি চাকমা প্রকল্পটির ভারপ্রাপ্ত জেনারেল ম্যানেজার হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন।

গতকাল সোমবার বোর্ডের খাগড়াছড়ি কার্যালয়ে রাবার কষ সংগ্রহকারীদের সাথে বোর্ড চেয়ারম্যান ও পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরার বৈঠকের পর এই সিদ্ধান্ত জানানো হয়। এ সময় উন্নয়ন বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান ও রাবারবাগান ব্যবস্থাপনা কমিটির চেয়ারম্যান তরুণ কান্তি ঘোষসহ বিভিন্ন রাবারবাগান গ্রাম প্রকল্পের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা সাংবাদিকদের জানান, রাবারবাগান ব্যবস্থাপনা প্রকল্পের জিএম সুখময় চাকমাকে বাদ দিয়ে নতুন একজনকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তাঁর বিরুদ্ধে উত্থিত অভিযোগসমূহ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। পুরো বিষয় হিসাব নিরীক্ষণ করা হবে।

প্রকল্পের কর্মকর্তা কর্মচারীদের ছয় মাসের বেশি বেতন ভাতা বকেয়া থাকার বিষয়ে বলেন, ‘পর্যায়ক্রমে তা সমাধান করা হবে। ’ রাবারবাগান এর প্ল্যান্টারদের নামে ভূমি বন্দোবস্তি দিতে বিলম্বের কারণ হিসেবে তিনি বলেন, ‘উচ্চ আদালতে একটি মামলার কারণে এটি বিলম্বিত হচ্ছে। ’

রাবারবাগান প্ল্যান্টার নেতা জীতেন চাকমা ও চিত্ত রঞ্জন চাকমা বলেন, অসহায় কষ সংগ্রহকারীদের আন্দোলন সফল হয়েছে। জিএম সুখময় চাকমাকে অপসারণ করায় দু-একদিনের মধ্যে আলাপ আলোচনা করে রাবার কষ আহরণ কাজ শুরু করা হবে।

উল্লেখ্য, খাগড়াছড়ি, রাঙামাটি ও বান্দরবান তিন পার্বত্য জেলার ৩ হাজার ৩০০ জন রাবারচাষি রয়েছেন। জিএমকে অপসারণসহ বিভিন্ন দাবিতে গত ১২ ফেব্রুয়ারি থেকে রাবার কষ আহরণ বন্ধ রাখেন তাঁরা। একই সাথে রাবার প্রক্রিয়াজাতকরণ কারখানাটিও বন্ধ ছিল।


মন্তব্য