kalerkantho


‘বাংলায় অনুপ্রবেশকারী ঠেকানো হবে, হিন্দু শরণার্থীদের নাগরিকত্ব দেবে বিজেপি’

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ জানুয়ারি, ২০১৯ ১৭:২৯



‘বাংলায় অনুপ্রবেশকারী ঠেকানো হবে, হিন্দু শরণার্থীদের নাগরিকত্ব দেবে বিজেপি’

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মালদহে জনসভা করেছেন বিজেপির সভাপতি অমিত শাহ। সেই সভায় তৃণমূলকে তীব্র আক্রমণ করেছেন তিনি। মমতা ব্যানার্জির সরকারকে উপড়ে ফেলার হুঙ্কারও দিয়েছেন তিনি।

কিন্তু তাকে বিশেষ আমল দিতে নারাজ রাজ্য তৃণমূল। বিজেপি সভাপতির মন্তব্যকে পাগলের প্রলাপ বলে কটাক্ষ করেছেন রাজ্যসভার সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন। তার দাবি, আর বেশি দিন নেই তাদের। সে কারণে মরিয়া হয়ে উঠেছে।

মঙ্গলবার মালদহে অমিত শাহর জনসভা শেষ হলে সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের ফেসবুক পেজে লাইভ ভিডিওতে দলের প্রতিক্রিয়া জানান ডেরেক ও’ব্রায়েন।

তিনি বলেন, ভারতীয় সংস্কৃতি সম্পর্কে ওয়াকিবহাল নয় বিজেপি। বাংলার সংস্কৃতি একেবারেই বোঝে না। বরাবরের মতো তাদের বক্তৃতা অত্যন্ত নিম্নরুচির। ভুল তথ্যে ভরা। আসলে শূন্য পাওয়ার দিকে এগোচ্ছে তো! জানে সময় এসেছে। তাই মরিয়া হয়ে উঠেছে। রাজনৈতিক আতঙ্ক গ্রাস করেছে তাদের। কেউ কেউ আবার বলছেন, পাগল হয়ে গেছে বিজেপি। আবার দু’টোই হতে পারে।

মালদহের সভায় অমিত শাহ বলেন, রাবনের শাসন ধ্বংস হয়ে গিয়েছিল, আর এ তো মমতার শাসন! হেলিকপ্টার নামার অনুমতি না দিলে এ বার থেকে হেলিকপ্টার থেকে ভাষণ দেব। কিন্তু মমতা দিদির বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাব।

তিনি আরো বলেন, এই মহাজোট স্বার্থের জোট। আমরা বলছি গরিবি হটাও, বিরোধীরা বলছে মোদি হটাও। তাই সাবধান হয়ে যান। পদ্মফুলে ভোট দিন।

তিনি আরো বলেন, বিজেপিকে ক্ষমতায় আনুন, একজন অনুপ্রবেশকারীও বাংলায় ঢুকতে পারবে না। সব হিন্দু শরণার্থীকে বলছি, বিজেপি তাদের নাগরিকত্ব দেবে।

 



মন্তব্য