kalerkantho


ধর্মীয় ব্যাপারে কারো নাক গলানো উচিত নয় : রজনীকান্ত

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ অক্টোবর, ২০১৮ ২১:০২



ধর্মীয় ব্যাপারে কারো নাক গলানো উচিত নয় : রজনীকান্ত

তামিলে চলচ্চিত্রের প্রখ্যাত অভিনেতা রজনীকান্ত আদালতের রায়কে সম্মান করেন এবং নারীর সমানাধিকারের দাবিতেও সমর্থন দেন। কিন্তু ধর্মীয় বিষয়ে কারো নাক গলানো মোটেও পছন্দ নয় তার। সেটা সাফ জানিয়ে দিয়েছেন তিনি।

কেরালার শবরীমালা মন্দিরে নারীদের অবাধ প্রবেশে সম্প্রতি সমর্থন দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। তা নিয়ে এতদিন মুখ খোলেননি দক্ষিণী সিনেমার এই তারকা অভিনেতা। তবে শনিবার চেন্নাইয়ে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হলে আবারো তার মতামত জানতে চাওয়া হয়। সেখানেই এ ধরনের মন্তব্য করেন তিনি।

রজনীকান্ত বলেন, প্রতিটি মন্দিরেরই কিছু নির্দিষ্ট রীতিনীতি রয়েছে। যেগুলো বহুকাল ধরে প্রচলিত। কোনো পরিস্থিতিতেই সেগুলোর অবমাননা করা উচিত নয়। অযথা নাক গলানো উচিত নয় কারও। সব ক্ষেত্রে নারীদের সমানাধিকার থাকা উচিত। এ ব্যাপারে কোনো সন্দেহ নেই। তাই সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মেনে নেওয়া উচিত সকলের। কিন্তু সেই সঙ্গে ধর্ম ও সেই সংক্রান্ত আচারানুষ্ঠানগুলোর প্রতিও যত্নশীল হওয়া প্রয়োজন।

শবরীমালার মতো #মিটু আন্দোলন নিয়েও ভিন্ন মত পোষণ করতে দেখা গেছে বর্ষীয়ান অভিনেতাকে। বলিউডের মতো দক্ষিণী চলচ্চিত্র জগতেও যৌন হেনস্থা নিয়ে মুখ খুলতে শুরু করেছেন একের পর এক অভিনেত্রী। হেনস্থার শিকার নারীদের সমর্থন জানিয়েছেন তিনি। তবে সেই সঙ্গে সতর্ক করে দিয়েছেন, এই আন্দোলনের অপব্যবহার যেন না হয়!

শবরীমালায় নারী প্রবেশ নিয়ে বিতর্ক দীর্ঘদিনের। যা নিয়ে চলতি বছরের ২৮ সেপ্টেম্বর উল্লেখযোগ্য রায় দেয় সুপ্রিম কোর্টের সাংবিধানিক বেঞ্চ। ঋতুমতী নারীদের মন্দিরে প্রবেশের পক্ষে রায় শোনায় আদালত। তাতে সম্মতি  দেয় কেন্দ্রীয় সরকার। সবরকম সহায়তার আশ্বাস দেয় রাজ্য সরকারও। তা সত্ত্বেও অশান্তি অব্যাহত কেরালায়। পাঁচদিনব্যাপী পূজার জন্য চলতি মাসের ১৭ তারিখ মন্দির খোলে। তার পর থেকে চরম আকার ধারণ করেছে বিক্ষোভ।



মন্তব্য